February 1, 2023, 9:13 am

দক্ষিণ কোরিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কাটল ব্রাজিল

যমুনা নিউজ বিডিঃ  দক্ষিণ কোরিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কাটল ব্রাজিল। সোমবার দিবাগত রাতে স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ এশিয়ার দলটিকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলায় মাতেন নেইমার-রিচার্লিসনরা। সাম্বার ছন্দে দুরন্ত ফুটবল উপহার দিয়ে প্রথমার্ধেই দক্ষিণ কোরিয়ার ম্যাচে ফেরার সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দেয় সেলেসাওরা। এরপর দক্ষিণ কোরিয়া ম্যাচে আর ফিরতেও পারেনি, ৪-১ হেরে কাতার বিশ্বকাপকে বিদায় বলেছে দলটি।

গোড়ালির চোট কাটিয়ে দুই ম্যাচ পর নেইমারের মাঠে ফেরা যেন শুরু থেকেই যেন বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগায় ব্রাজিলকে। গ্রুপ পর্বে ব্রাজিল গোল পেয়েছেন তিনটি। ক্যামেরুনের কাছে হেরে গিয়েছিল শেষ ম্যাচ। তবে এদিন দক্ষিণ কোরিয়ার জালে মাত্র ৩৬ মিনিটেই চারবার বল পাঠায় সেলেসাওরা। দ্বিতীয়ার্ধেও ব্রাজিলের গোলের নেশা কমেনি। তবে এই অর্ধে দক্ষিণ কোরিয়া রক্ষণে মনোযোগ দিয়ে গোলের ব্যবধান আর বাড়তে দেয়নি।

রাউন্ড অব ১৬-এর লড়াইয়ে দক্ষিণ কোরিয়া কিছু বুঝে ওঠার আগেই গোল পেয়ে যায় ব্রাজিল। ডান প্রান্তে বল পায়ে দারুণ কারিকুরির পর রাফিনিয়া বল দিয়েছিলেন ডি বক্সে আগুয়ান নেইমারকে। বল গোলে রাখতে ব্যর্থ হলেও নেইমারের পা ছুঁয়ে তা চলে যায় ডান প্রান্তে থাকা ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের কাছে। ৭ম মিনিটে এই রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড বেশ ঠাণ্ডা মাথায় তিন কোরিয়ান ডিফেন্ডারের মাথার ওপর দিয়ে বল জড়ান জালে।

প্রথম গোলের রেশ না কাটতেই আবারো কোরিয়ার জালে ব্রাজিলের গোল। এবারেরটা স্পটকিক থেকে। ১৩ পেনাল্টি থেকে এই বিশ্বকাপের প্রথম গোল করেন নেইমার। ডি বক্সে রিচার্লিসন ফাউলের শিকার হলে রেফারি বাজান পেনাল্টির বাঁশি। নেইমার গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে বল জালে পাঠাতে করেননি কোনো ভুল।

পরের গোলটি সম্ভবত এই বিশ্বকাপের সেরা দলগত গোল। সাম্বা জাদুতে রীতিমতো মুগ্ধ করে গোলটি করেন রিচার্লিসন। ২৯তম মিনিটে দারুণ দক্ষতায় বল নিয়ন্ত্রণে রাখার পর মার্কুইনোসকে পাস দিয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়েন রিচার্লিসন। মার্কুইনোসের কাছ থেকে বল থিয়াগো সিলভা হয়ে ডি বক্সে খুঁজে নেয় রিচার্লিসনকে। প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করা এই টটেনহাম ফুটবলার নিখুঁত নিশানায় করেন লক্ষ্যভেদ। ব্রাজিল এগিয়ে যায় ৩-০ গোলে।

কোরিয়ার ম্যাচে ফেরার সমস্ত রাস্তা বন্ধ হয়ে যায় লুকাস পাকেতা স্কোরশিটে নাম তুললে। এবারো ছন্দময় ফুটবল এবং দলগত বোঝাপড়ায় দক্ষিণ কোরিয়ার জাল কাঁপায় ব্রাজিল। নিচে থেকে রিচার্লিসন বল নিয়ে উপরে উঠে বাড়ান নেইমারকে। এই ফরোয়ার্ড এরপর খুঁজে নেন ভিনিসিয়ুসকে। ব্রাজিলের হয়ে গোলখাতা খোলা ভিনিসিয়ুসের পাস থেকেই দারুণ শটে ব্যবধান ৪-০ করেন পাকেতা।

প্রথমার্ধে ব্রাজিলের ভয়ংকর সুন্দর ফুটবলের সামনে দাঁড়াতে না পারলেও, দ্বিতীয়ার্ধে বেশ ভালোই লড়াই করে দক্ষিণ কোরিয়া। প্রথমার্ধের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এই অর্ধে রক্ষণে মন দেয় দলটি। ব্রাজিল তাই মুহুর্মুহু আক্রমণ চালালেও গোল হজম করতে হয়নি দলটিকে। উল্টো ধারার বিপরীতে একটি গোল শোধ দেয় তারা। ৭৬তম মিনিটে ব্রাজিলের ডি বক্সের বেশ বাইরেই ফ্রি কিক পায় কোরিয়া। ফ্রি কিক থেকে বল ব্রাজিলের রক্ষণ দেয়ালে লেগে ফিরে আসলে ডি বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শটে গোল করেন পাইক সেউং-হো।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD