February 4, 2023, 3:20 pm

দেশের সকল বীমা কোম্পানিতে ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা’ চালুর নির্দেশ

যমুনা নিউজ বিডিঃ শিশু শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার স্বার্থে ২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বীমা পলিসি চালু করে সরকার। পরিকল্পটি প্রথমে সরকারী বীমা কোম্পানি জীবন বীমা করপোরেশনে পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে চালু করলেও বর্তমানে তা সকল বেসরকারি জীবন বীমা কোম্পানিগুলোকে চালুর নির্দেশ দিয়েছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি গত ২৯ নভেম্বর সব জীবন বীমা কোম্পানিকে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ৭ মার্চ বীমা মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এসোসিয়েশন (বিআইএ) বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিলেন যে, বেসরকারী বীমা কোম্পানিগুলো বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বীমা চালু করতে চায়।

সম্প্রতি আইডিআরএ থেকে জীবন বীমা করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) পাশাপাশি সব জীবন বীমা কোম্পানির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) বরাবর এ সংক্রান্ত নির্দেশনার চিঠি পাঠানো হয়েছে। এতে সই করেছেন আইডিআরএ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারি।

চিঠিতে বলা হয়েছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা’ প্রবর্তন করা হয়। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন জীবন বিমা করপোরেশনের মাধ্যমে দেশের প্রাথমিক, কারিগরি এবং মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের বিমার আওতাভুক্ত করে পরিকল্পটির পাইলটিং করা হয়।

আইডিআরএ’র তথ্য অনুযায়ী, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা’র আওতায় ৩-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীর অভিভাবককে বছরে ৮৫ টাকার প্রিমিয়ামের বিনিময়ে বিমাভুক্ত করা হয়েছে। অভিভাবকের অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু বা নির্দিষ্ট কিছু দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে মাসিক ৫০০ টাকা হারে শিক্ষার্থীদের ১৭ বছর বয়স পর্যন্ত শিক্ষা বিমা সুবিধা দেয়া হয়।

আইডিআরএ জানিয়েছে, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা পরিকল্পটি কাঙ্ক্ষিত শিক্ষার্থীদের কাছে জনপ্রিয় হয়েছে এবং এর মাধ্যমে দেশের ৬৪ জেলার ৫০ হাজার শিক্ষার্থী বিমা পরিকল্পটির আওতায় বিমাভুক্ত হয়েছে।

জীবন বিমা করপোরেশন থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, এখনো পর্যন্ত সাতটি বিমা দাবি উত্থাপিত হয়েছে। অর্থাৎ ব্যবসায়িক দিক দিয়েও পরিকল্পটি লাভজনক হচ্ছে।

বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি বলছে, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন চলমান রাখা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে তাদের ঝরে পড়া রোধে এ সাফল্যকে অব্যাহত রাখার জন্য ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা’ পরিকল্পটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রচলন করা আবশ্যক।

এতে বিমার প্রচার ও প্রসার বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি একদিকে যেমন জীবন বিমা খাতে বিমার পেনিট্রেশন বাড়বে, অন্যদিকে দারিদ্র্য জনগোষ্ঠীর কম বয়সী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবনের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমা পরিকল্পটির বিক্রির তথ্য নির্ধারিত ছকে প্রতি মাসের ৭ তারিখের মধ্যে আইডিআরএ’র কাছে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি পরিকল্পটি চালু করে ব্যাপকভাবে বাজারজাতকরণ করতে জীবন বিমা কোম্পানিগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD