August 15, 2022, 4:14 pm

বগুড়ার গাবতলীতে অবৈধ শিক্ষা ট্রাষ্ট কমিটির কার্যক্রম স্থগিতের আদেশ

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার গাবতলী মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নব গঠিত অবৈধ শিক্ষা ট্রাস্ট কমিটির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ রোজিনা আকতার নাইস। মামলাটি আমলে নিয়ে উক্ত অবৈধ শিক্ষা ট্রাস্ট কমিটির কার্যক্রম স্থগিতের আদেশ দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেলে বগুড়ার গাবতলী সহকারী জজ আদালতে আলহাজ¦ মজিবর রহমান মজনুসহ ২২ জনকে বিবাদী করে মামলা করেছেন। মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নব ঘোষিত অবৈধ কমিটি প্রতিষ্ঠানে কোন কার্যক্রম ও নিয়োগ দান করতে পারবে না।মামলা সুত্রে জানা যায়, গাবতলী মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের এডহক কমিটি গঠন করার লক্ষ্যে অভিভাবক সদস্য মনোনয়ন প্রদান করিয়াছেন। উক্ত স্মারক মুলে গত ২০/০৪ তারিখে জারিকৃত ৩০দিনের মধ্যে সভা করে ৩ বছরের জন্য নির্বাহী কমিটির মেয়াদ বলবৎ থাকিবে বলে নির্দেশ প্রদান করিয়া গেজেট করিয়াছেন। মামলার ১ নম্বর বিবাদী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ মজিবর রহমান মজনু কর্তৃক গাবতলী মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ কুক্ষিগত করিবার লক্ষ্যে অপকৌশলে বিগত ০৯/০৬ তারিখে ৩শত টাকার তিনখানা ননজুড়িশিয়াল ষ্ট্যাম্প কাগজে ৭ নং বিবাবীকে ভুল বুঝিয়ে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে ষড়যন্ত্র মুলকভাবে বুয়া জোগসাজসে বাতিল, একখন্ড অরেজিঃকৃত অননুমোদিত কাগজে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষা ট্রাস্ট বগুড়ার সহিত অন্তভুক্তি করণ চুক্তিপত্র সৃষ্টি করিয়া ট্রাষ্টি বোর্ডের অধীনে প্রতারনা ও ষড়যন্ত্র মুলকভাবে সৃষ্টি করিয়া ক্ষমতা বর্হিভুত ভাবে তাহাতে ১৭/০৫ তারিখে বোর্ড অব ট্রাষ্টির চেয়ারম্যান হিসাবে সত্যায়িত করেছেন। বিবাদীগন উক্ত প্রতারণা ও ষড়যন্ত্রমুলক ভুয়া যোগসাজসে বেআইনী বাতিলযোগ্য উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে সৃষ্ট বাতিল যোগ্য উকÍ অরেজিঃকৃত কাগজে অন্তভুক্তিকরণ চুক্তিপত্র ব্যবহার করেছে। এসব অভিযোগ আমুলে নিয়ে উক্ত ট্রাষ্টির বোর্ডের সকল কার্যক্রম স্থগিত করে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কোন কার্যক্রম বা নিয়োগ প্রদান করতে পারবে না বলে আদেশ দিয়েছেন। মামলার বিবাদীগনরা হলো, ১ নম্বর আলহাজ¦ মজিবর রহমান মজনু, আবুল কালাম আজাদ, মোহন চন্দ্র সরকার, আতাউর রহমান সুমন, রফিকুল ইসলাম সুমন, রফিকুল ইসলাম রফিক, অধ্যক্ষ মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের কথিত সদস্য সচিব, কলেজের খাজা নাজিমুদ্দিন (প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক) পূর্বের অনুমোদিত সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মোত্তালিব মানিক, আলহাজ¦ আমিরুল মোমিন মুক্তা, (কথিত সহ সভাপতি), বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী, জিন্নাতুল ইসলাম মতিয়ার রহমান, ছামছুল হক, আজিজুল হক ভোলা, আনছার আলী, আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুস সোবহান বুলু, সাব্বির হোসেন (জাফরু পাইকার) হাবিব হাসান, ফাতেমা জহুরা , বিদ্যালয় পরিদর্শক, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।বাদী পক্ষের আইনজীবি মামলা পরিচালনাকারী এ্যাডভোকেট আল আমিন রাসেল জানান, গাবতলী মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নব গঠিত অবৈধ শিক্ষা ট্রাস্ট কমিটির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ রোজিনা আকতার নাইস। সেই মামলা আমুলে নিয়ে গাবতলী সহকারী জজ আদালত মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নব ঘোষিত অবৈধ কমিটি প্রতিষ্ঠানে কোন কার্যক্রম ও নিয়োগ দান নিষেধ ধাজ্ঞা জারি করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD