July 1, 2022, 10:44 pm

News Headline :

বগুড়ায় প্রায় ৫ লাখ শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এর আওতায় এবছর বগুড়ায় প্রায় ৫ লাখ শিশুকে ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। আগামীকাল ১৫ জুন থেকে ১৯ জুন পর্যন্ত এই ক্যাম্পেইন চলবে। জেলার মোট ২ হাজার ৮ শত ৬ টি কেন্দ্রে খাওয়ানো হবে অতিপ্রয়োজনীয় এই ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল।‌ জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে বগুড়ায় সাংবাদিকদের অবহিতকরণ সভায় এই তথ্য জানানো হয়েছে।

১৪ জুন (মঙ্গলবার) দুপুরে জেলা সিভিল সার্জনের সভাকক্ষে আয়োজিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন বগুড়ার সিভিল সার্জন ডাঃ শফিউল আজম । এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃশাহানাজ পারভীন, বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সামির হোসেন মিশু । এছাড়াও ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পপেইনের বিস্তারিত তুলে ধরেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ সাজ্জাদ হোসেন । ওরিয়েন্টেশন সভায় আরো জানানো হয়, ১৫ জুন হতে জেলার মোট ২ হাজার ৮ শত ৬ টি কেন্দ্রে ৬ মাস থেকে ৫ বছর বয়সী জেলার মোট ৪ লাখ ৮০ হাজার ৪ শত ৮৫ জন শিশুকে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন এর মাধ্যমে ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে । এরমধ্যে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৫৬ হাজার ৬১৭ জন শিশুকে নীল ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ২৩ হাজার ৮৬৮ জন শিশুকে লাল ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে । ডাঃ সামির হোসেন মিশু জানান , প্রতিটি কেন্দ্রে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রশিক্ষিত কর্মি ক্যাপসুল খাওয়ানোর দায়িত্ব পালন করবে । এছাড়াও স্বাস্থ্য বিভাগের সকল কর্মি এবং এনজিও কর্মিরা কাজ করবেন । ভিটামিন এ প্লাস হচ্ছে ক্যাপসুল খাওয়ানোর পাশাপাশি স্বাস্থ্য শিক্ষা বার্তা পৌঁছে দেয়ার একটি কার্যক্রম । এবছর যে লাল এবং নীল ক্যাপসুলটি খাওয়ানো হবে দুটোই দেশের গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালস এবং রেনেটা ফার্মাসিউটিক্যালস এর তৈরি । বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরীক্ষা নিরীক্ষার পর এসব ক্যাপসুল অনুমোদিত হয়েছে ।

তিনি আরো জানান, ১৫ জুন থেকে শুরু হয়ে ১৯ জুন পর্যন্ত ৪ দিন যাবত ভিটামিন এ প্লাস খাওয়ানোর কর্মসূচি সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে । তবে এর মাঝে শুক্রবার টিকা খাওয়ানো বন্ধ থাকবে। যদি কেউ ক্যাম্পেইন চলাকালে কোন কারণে শিশুকে ক্যাপসুল খাওয়াতে ব্যর্থ হয় , তাদের জন্য স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও হাসপাতালে এই ক্যাপসুল সংরক্ষণ করা হবে । সেখানে গিয়ে পরবর্তীতে ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে । তবে মাসের কম বয়সী এবং ৫ বছরের বেশি বয়সী শিশুকে এই টিকা খাওয়ানো যাবে না ।

সিভিল সার্জন ডাঃ শফিউল আজম  আরও জানান , যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি মেনে এবং সতর্কতার সাথে এই ক্যাপসুল খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে । আর এই ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন সফল করতে প্রচার প্রচারণা চলছে । কর্মশালায় বগুড়ায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD