July 2, 2022, 11:10 am

গাবতলীতে ২ কোটি ৩১ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক প্রকল্প কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : বগুড়ার গাবতলীতে কাজ না করেই ভূয়া প্রকল্প কমিটি দেখিয়ে সরকারি বরাদ্দের প্রায় ২ কোটি ৩১ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভূয়া প্রকল্প সভাপতির নাম ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের টিআর কাবিখা-২ এবং জেলা প্রশাসকের বরাদ্দের ৪৭৪টি কাজে এমন প্রতারণা অভিযোগ উঠে। অনুসন্ধানে ২৯৫টি প্রকল্পের আত্মসাতের তথ্যের ভিত্তিতে এই মামলা করে বগুড়া জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন দুদকের উপ পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে এই মামলা করেন। অভিযুক্ত হলো, গাবতলী উপজেলার সাবেক প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মো. আব্দুল আলীম। গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে গাবতলী উপজেলায় দায়িত্বে ছিলেন। আব্দুল আলীম বর্তমানে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার পদে রয়েছেন।

দায়েরকৃত মামলা সুত্রে জানা যায়, গাবতলী উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের টিআর কর্মসূচির আওতায় ২৮০টি প্রকল্পের বরাদ্দ আসে। এর মধ্যে ২৭৮টি প্রকল্পের কাজ করা হয়। এ ছাড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে গাবতলী উপজেলা প্রকল্প বায়স্তবায়ন কর্মকর্তা পিআইও দপ্তরে আরও ২০০টি প্রকল্পর বরাদ্দ দেয়া হয়। এ বরাদ্দের মধ্যে ১৯৬টি প্রকল্পের কাজ দেখানো হয়। এসব প্রকল্পের প্রতিটির জন্য ৭৮ হাজার ২০২ টাকা বরাদ্দ ছিল। ২০২০ সালে ওই অর্থবছরের কাজ হওয়া প্রকল্পগুলো নিয়ে গাবতলী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের একটি অভিযোগ ওঠে। দুদক খোঁজ নিয়ে জানতে পারে তৎকালীন পিআইও কর্মকর্তা আব্দুল আলীম টিআর কর্মসূচির ২৭৮ ও জেলা প্রশাসকের ১৯৬টি প্রকল্পের টাকা অগ্রিম প্রদান করেছেন। পরবর্তীতে দুদক ৮টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় দৈবচয়ন পদ্ধতিতে ২৯৫টি প্রকল্প যাচাই করে। এতে এসব কাজের কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। অনেক ক্ষেত্রে ভূয়া প্রকল্প সভাপতির নাম ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে। এভাবে ২৯৫টি প্রকল্পের ২ কোটি ৩০ লাখ ৬৯ হাজার ৭৯৩ টাকার সরকারি অর্থ আত্মসাতের সত্যতা পাওয়া গেছে।

বগুড়া জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, সাবেক গাবতলী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পিআইও আব্দুল আলীমের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৩০ লাখ ৬৯ হাজার ৭৯৩ টাকার সরকারি অর্থ আত্মসাতের তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই দন্ডবিধি ৪০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করায় তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD