June 13, 2024, 4:19 pm

বগুড়া পৌরসভার স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিষয়ক পরিকল্পনা কর্মশালা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের বৃহত্তর ও ঐতিহ্যবাহী বগুড়া পৌরসভার স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিষয়ক পরিকল্পনা কর্মশালা বুধবার সকালে হোটেল লা ভিলায় অনুষ্ঠিত হয়। বগুড়া পৌরসভা ও প্রবৃদ্ধি প্রকল্পের যৌথ উদ্যোগে এই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। কর্মশালার উদ্বোধন করেন বগুড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ রেজাউল করিম বাদশা। এ কর্মশালায় স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের জন্য অংশগ্রহণ করেন বগুড়া পৌরসভার কর্মকর্তাগণ, পৌর কাউন্সিলরগণ, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টর ও ফাউন্ড্রি খাতের উদ্যোক্তাগণ এবং গণমাধ্যমকর্মী।

উদ্বোধনী বক্তব্যে পৌর মেয়র রেজাউল করিম বাদশা বলেন, ১৮৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত বগুড়া পৌরসভা। ২১টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ পৌরসভার আয়তন ৬৯ দশমিক ৫৬ বর্গকিলোমিটার। জনসংখ্যা প্রায় ১০ লাখ। দেশের মধ্যে বৃহত্তর এ পৌরসভা প্রথম শ্রেণীর হলেও অন্যান্য পৌরসভায় যে পরিমান বরাদ্দ হয়, বগুড়া পৌরসভারও সেই বরাদ্দ নিয়েই বিপুল জনগোষ্ঠীকে পৌরসেবা দিতে হচ্ছে। যার কারণে ইচ্ছা থাকলেও চাহিদা অনুযায়ী পরিপূর্ণ নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না। তবুও আমরা সেবা দেয়ার চেষ্টা করছি। এ ক্ষেত্রে বগুড়া পৌরসভার স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে এগিয়ে আসার জন্য তিনি প্রবৃদ্ধি প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। তিনি বগুড়া পৌরসভাকে আধুনিক ও পরিকল্পিত শহর হিসেবে গড়ে তুলতে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

কর্মশালার আলোচনায় অংশ নেন প্রবৃদ্ধি প্রকল্পের টিম লিডার মিঃ মার্কাস এহমান, বগুড়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ পরিমল চন্দ্র দাস, প্যানেল মেয়র-২ ও বামমা বগুড়ার সভাপতি মোঃ আলহাজ শেখ, প্যানেল মেয়র-৩ মোছাঃ শিরিন আকতার, পৌর কাউন্সিলর লায়ন কবিরাজ তরুণ কুমার চক্রবর্ত্তী, রেজাউল করিম ডাবলু, অধ্যক্ষ এরশাদুল বারী এরশাদ, এনামুল হক সুমন, রাজু হোসেন পাইকর ও রুহুল কুদ্দুস ডিলু, পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হেনা মোস্তফা কামাল, শহর পরিকল্পনাবিদ আল মেহেদী হাসান, সমাজ উন্নয়ন কর্মকর্তা রাখিউল আবেদীন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম, বাজার পরিদর্শক আব্দুল হাই, কর আদায়কারি জিবন কৃষ্ণ যাদব, পরিবেশ অধিদপ্তর রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয় বগুড়ার ডেপুটি ডাইরেক্টর মেজবাহুল আলম, এ্যাসিস্টেন্ট ডাইরেক্টর তামিম হাসান, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বগুড়ার ডেপুটি এ্যাসিস্টেন্ট ডাইরেক্টর কামরুল হাসান, সিনিয়র স্টেশন অফিসার আব্দুল হালিম, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি মোঃ এনামুল হক দুলাল, বগুড়া বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি আজিজার রহমান মিল্টন, উদ্যোক্তা আব্দুল মালেক, বাংলাদেশ এগ্রিকালচারাল মেশিনারী মার্চেন্ট এসোসিয়েশন (বামমা) বগুড়ার সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাজেদুর রহমান রাজু, প্রবৃদ্ধি প্রকল্পের সার্বিক সেক্টর ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিস্ট রোকন উদ্দিন আহমেদ, এলইডি কো-অর্ডিনেটর নাহিদ সুলতানা বর্ষা, নলেজ ম্যানেজমেন্ট এবং এ্যাডভোকেসী কো-অর্ডিনেটর সাব্বির রহমান খান, এম আর এম অফিসার ফাহিম শাহরিয়ারসহ পৌরসভার কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ।
কর্মশালায় স্থানীয় অর্থনীতির চালিকাশক্তি হিসেবে পৌরসেবা, মানবসম্পদ, সম্ভাবনাময় খাত, ব্যবসায়ীক পরিসেবা, অবকাঠামো খাত এর উন্নয়নের লক্ষ্যে এর প্রতিবন্ধকতা এবং প্রস্তাবিত সমাধান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

কর্মশালায় জানানো হয়, গত ১০-১২ মে ২০২২ বগুড়া পৌর কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় ব্যবসাখাতের প্রতিনিধিবৃন্দের অংশগ্রহণে প্রবৃদ্ধি প্রকল্পের সহযোগিতায় তিনটি ক্ষুদ্র কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালাগুলোতে বগুড়া পৌরসভা ও লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতে বিদ্যমান সমস্যাসমুহ ও সম্ভাবনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এছাড়া প্রবৃদ্ধি প্রকল্প বগুড়ায় অবস্থিত বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের অংশীজনদের সাথে সাক্ষাৎ ও স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে তাদের মতামত গ্রহণ করে। এরপর সকলের সম্মতিক্রমে বগুড়ার স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে বাস্তবায়নযোগ্য কিছু স্বল্পমেয়াদী কার্যক্রম নির্বাচন করা হয়। বগুড়ার স্থানীয় মানুষজনের নেতৃত্বে আগামী ৩ থেকে ৬ মাসের মধ্যে এই কার্যক্রম সমুহ বাস্তবায়ন করা হবে বলে সকলে সম্মত হয়। পরিকল্পনা কর্মশালায় নির্বাচিত কার্যক্রম সমূহ বাস্তবায়নের জন্য স্থানীয় প্রতিনিধিবৃন্দের সাথে একত্রে কর্মপরিকল্পনা তৈরী করা হয়।

কর্মশালায় বলা হয়, প্রবৃদ্ধি একটি স্থানীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন প্রকল্প যা সুইজারল্যান্ড ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে এবং সুইসকন্টাক্ট ও স্থানীয় সরকার বিভাগের (এলজিডি) তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন