May 17, 2022, 8:23 pm

News Headline :
ময়মনসিংহে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত বাইপাসের ব্রিজ ভেঙে ট্রাক-মোটরসাইকেল খালে পদ্মা সেতুতে টোল : মোটরসাইকেল ১০০, বাস ২৪০০ টাকা শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বগুড়ায় আনন্দ শোভাযাত্রা শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বগুড়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের আলোচনা সভা ইজিবাইক চালক মিলন হত্যার রহস্য উদঘাটন বগুড়ার শিবগঞ্জ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত সিরাজগঞ্জে স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড দিল বিজ্ঞ আদালত শেরপুরে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন ঠাকুরগাঁওয়ে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য পাঁচটি সেরা থিম লঞ্চার

প্রিয় অ্যান্ড্রয়েড ফোনটিকে নিজের মতো করে সাজিয়ে গুছিয়ে রাখার ইচ্ছা সবারই আছে। পছন্দের ওয়ালপেপার, থিম, রিংটোন ইত্যাদি সেট করে সবার সামনে নিজেকে একটু অন্যভাবে উপস্থাপন করা যায়। প্রতিটি এন্ড্রয়েড সেটে প্রি-লোডেড কিছু থিম দেয়া থাকে। তাতে কি আর মন ভরে ? তো আসুন দেখে নিই আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য সেরা পাঁচটি থিম লঞ্চার।

১. নোভা লঞ্চার : অ্যান্ড্রয়েডের জন্য দুটি স্ট্যান্ডার্ড থিম প্যাক হলো নোভা এবং অ্যাপেক্স লঞ্চার।নোভা লঞ্চারে প্রচুর ফিচার রয়েছে যার তুলনায় এর আকার খুব বেশি না। নোভা লঞ্চার এর একটি প্রিমিয়াম ভার্সন ও আছে। তবে ফ্রি ভার্সনে সুবিধা একেবারেই কম নয়। এতে অনেকগুলি ইফেক্ট ব্যাবহার করা যায় এবং বিভিন্ন আইকন প্যাক ব্যবহার করা যায়।

২. এপেক্স লঞ্চার : অ্যান্ড্রয়েড লঞ্চারগুলোর মধ্যে সবচে সহজ ব্যাবহারযোগ্য এবং দ্রুত লঞ্চার হলো অ্যাপেক্স লঞ্চার। এতে উইন্ডোজ ১০সহ অনেকগুলি আইকন প্যাক ইনস্টল করা যায়। এর ইন্টারফেস জটিল নয় এবং স্ট্যন্ডার্ড। অ্যাপেক্স লঞ্চারটিতে একটি ট্যাবলেট মুড রয়েছে। যার দ্বারা ভার্টিক্যালি স্ক্রিন সেটআপ করা যায়। এপেক্স এর প্রিমিয়াম ভার্সনে অসাধারণ একটি নোটিফাইয়ার সার্ভিস রয়েছে যার দ্বারা আপনি জরুরী নোটিফিকেশন কাস্টমাইজ করতে পারবেন। যদিও এটি আপনার ব্যাটারি খরচ বৃদ্ধি করে। তাই সামান্য সুবিধার জন্য ফ্রি ভার্সন ছেড়ে অ্যাপেক্স এর প্রিমিয়াম ডাউনলোড না করাই শ্রেয়।

৩. গুগল নাও লঞ্চার : গুগলের এই থিম প্যাকটি ফ্রি একটু সাদামাটা হলেও তা অ্যান্ড্রয়েডের জন্য একটি স্ট্যান্ডার্ড লঞ্চার। এতে বাটন-ফ্রি ভয়েস কন্ট্রোল সুবিধা রয়েছে। এর ট্রান্সপারেন্ট (স্বচ্ছ) ইন্টারফেস আপনাকে উইন্ডোজ সেভেন কিংবা ভিস্তা ব্যবহারের অনুভুতি দিবে।

৪. ইয়াহু এভিয়েট লঞ্চার : ইয়াহুর তৈরি এভিয়েট লঞ্চার সেরা লঞ্চারগুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি স্মার্টফোনে ইনস্টলকৃত এ্যাপগুলোকে তাদের ক্যাটাগরি অনুযায়ী ভাগ করে তারপর উপস্থাপন করতে পারে। রয়েছে কাস্টমাইজ অপশনও। আপনি যদি লোকেশন ব্যাবহারের অনুমতি দেন তবে ইয়াহু এভিয়েট আপনার অবস্থান অনুযায়ী এ্যাপ চালু ও বন্ধ করবে। যেমন আপনি কোথাও বেড়াতে গেছেন তখন সে ইন্স্টাগ্রাম কিংবা মোমেন্টস্ এর মত অ্যাপ চালু করে দিবে। ফোনকে ডোন্ট ডিস্টার্ব মুড এ রাখতে পারবেন। তবে যেকোন কিছু ব্যাবহারের আগে ইয়াহু আপনার অনুমতি নেবে।

৫. নকিয়া জেড লঞ্চার : নকিয়া লঞ্চার আপনাকে সর্বাধিক ব্যাবহৃত অ্যাপ এবং সর্বাধিক ভিজিটকৃত ওয়েবসাইটগুলোকে সনাক্ত করবে এবং আপনাকে দ্রুত খুঁজে পাওয়ার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। আরেকটি দারুন সুবিধা হলো আপনি কোন অ্যাপ ওপেন করতে চাইলে সেটি আর ড্রয়ারে গিয়ে খুঁজতে হবে না। আপনি শুধু সেই অ্যাপটির প্রথম অক্ষর আঙ্গুল দিয়ে এঁকে ফেলুন সাথে সাথে ওপেন হয়ে যাবে আপনার কাঙ্খিত অ্যাপ। জেড লঞ্চারে আপনার অ্যাপগুলি সাজানোর জন্য বিভিন্ন অপশন রয়েছে যা আপনি ইচ্ছামতো সাজাতে পারবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD