August 14, 2022, 6:00 am

ইউক্রেনে দীর্ঘমেয়াদী যুদ্ধে যে প্রস্তুতি নিচ্ছে রাশিয়া

যমুনা নিউজ বিডিঃ রুশ বাহিনী ইউক্রেনের লুহানস্ক প্রদেশের সর্বশেষ প্রধান ইউক্রেনীয়-নিয়ন্ত্রিত শহর লিসিচানস্ক নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে বলে দাবি করেছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু।

রাশিয়ান সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সের্গেই শোইগু রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে বলেছেন, সফল সামরিক অভিযানের ফলস্বরূপ, রাশিয়ান ফেডারেশনের সশস্ত্র বাহিনী, লুহানস্ক পিপলস রিপাবলিকের পিপলস মিলিশিয়া ইউনিটের সঙ্গে লিসিচানস্ক শহরের উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে।

সেভেরোদোনেৎস্কের মতো লিসিচানস্ক যেন রুশ সেনারা দখল না করতে পারে সেজন্য গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সেখানে শক্ত ঘাঁটি গেড়েছে ইউক্রেনীয় সেনারা। এমনকি সেভেরোদোনেৎস্কে থাকা সেনাদের লিসিচানস্কে নিয়ে আসা হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের একটি গবেষণা সংস্থা বলছে, রাশিয়া তাদের অর্থনীতিতে এমন কিছু পরিবর্তন আনছে যা দেখে মনে হচ্ছে, তারা ইউক্রেনে একটি দীর্ঘমেয়াদী যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ইন্সটিটিউট অব ওয়ারের গবেষণায় বলা হচ্ছে, ইউক্রেনে দীর্ঘ সময় ধরে সংঘাত চালিয়ে যাওয়ার ধকল যেন সামলানো যায়, সেজন্যে রাশিয়া নিজেদের অর্থনীতিতে পরিবর্তন আনছে।

ইউক্রেন যুদ্ধ সম্পর্কে ইন্সটিটিউট অব ওয়ার তাদের সর্বশেষ পর্যালোচনায় বলছে, ক্রেমলিন এমন কিছু আইন করার প্রস্তাব করছে, যা মানুষকে রাতের বেলায় বা কেন্দ্রীয় সরকারের ছুটির দিনেও কাজ করতে বাধ্য করবে।

বিশেষ সামরিক অভিযানের জন্য সরকারের জারি করা নির্দেশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো যাতে অমান্য করতে না পারে, সেজন্যে এটা আইন করে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে।

ইন্সটিটিউট আরও বলছে, রুশ কর্তৃপক্ষ ইউেক্রেনের যাপোরিঝিয়া পরমাণু শক্তি কেন্দ্র রাশিয়ার জ্বালানি ব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত করতেও ব্যবস্থা নিচ্ছে।

এদিকে ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরের লক্ষ্যবস্তু টার্গেট করে রাশিয়া দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা অব্যাহত রেখেছে।

বন্দর শহর ওডেসা থেকে একশো কিলোমিটার দূরের মিকোলাইভ শহর একের পর এক বিস্ফোরণে কেঁপে কেঁপে উঠে। এসময় শহরে এয়ার রেইড সাইরেন, অর্থাৎ বিমান হামলার সতর্ক সংকেত শোনা গেছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD