October 7, 2022, 7:03 am

গাবতলীতে পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে দস্যুতার মামলা প্রত্যাহারের দাবি

গাবতলী প্রতিনিধিঃ বগুড়ার গাবতলী আবদুর রহিম বাদী হয়ে থানায় পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে দস্যুতার মামলা করায়,তা প্রত্যাহারের দাবিতে ২ সেপ্টেম্বর শুক্রবার পরিবারের পক্ষ থেকে ধোরা গ্রামে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।
গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের ধোরা পুর্বপাড়া গ্রামের রিয়াদ হাসান (২০) ও তার পিতা রাঙ্গা মেকারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় একই গ্রামের মৃত ছুমু সাকিদারের ছেলে আবদুর রহিম (৫৭) বাদী হয়ে দস্যুতার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করে। মামলাটি প্রত্যাহারের দাবিতে পরিবারের পক্ষথেকে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে গ্রেফতারকৃত রিয়াদ হাসানের মা-রেশমা বেগম দাবী করেন, ২৪ আগস্ট দিবাগত রাতে ষড়যন্ত্রকরে বাড়ি থেকে তার ছেলে রিয়াদ হাসানকে, মোটর সাইকেলসহ বাদী আবদুর রহিম ও শাজাহান মেম্বার এবং এলাকার কতিপয় ব্যাক্তি ধরে নিয়ে গিয়ে পুলিশে দিয়ে দস্যুতার মামলা করেন। মামলায় তার স্বামী রাঙ্গাকেও আসামি করা হয়েছে। তিনি মামলা প্রত্যাহার ও প্রশাসনের কাছে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবী জানান। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, গ্রেফতারকৃত রিয়াদ হাসানের দাদা বাচ্চু, দাদী ছামছুন্নাহার, নানা আবদুল মান্নান, নানী রেবেকা বেগম, এলাকাবাসী ওসমান আলী, বাবলু, শফিকুল ইসলাম, পার্থ, নাদিমুল, শিহাব, বিপুল, রবিউল, আশিক, অলক, শান্ত ও হেলাল প্রমুখ।
এব্যপারে শাজাহান মেম্বারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, রাঙ্গা ও তার ছেলে রিয়াদ হাসান আবদুর রহিমের শ্যালো মেশিন চুরি করতে গিয়ে তাকে গলায় চাকু দিয়ে হত্যা চেষ্টা ও দস্যুতা করে। স্থানীয় লোকজন রিয়াদকে আটক করে পুলিশে দেয়। তারা বিভিন্ন লোকের শ্যালো মেশিন চুরি করেছ। তারা এলাকায় অপরাধ মুলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। তিনি বলেন, আমাকে মিথ্যাভাবে দোষারোপ করা হচ্ছে, তা সঠিক নয়। ঘটনাটি মহিষাবান ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মধ্য ঘটলেও, আমার ওয়ার্ড নং৭।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD