June 12, 2024, 2:29 pm

বাজেটকে দেশবিরোধী বললেন মির্জা ফখরুল

যমুনা নিউজ বিডি: ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকার লুটেরাতে পরিণত হয়েছে। লুটেরাদের বাজেট হবে কেন? লুট করার জন্য। আমি দেখতে পাচ্ছি আবারও লুট করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। তথাকথিত যে বাজেট দেওয়া হয়েছে, এই বাজেটে আয়ের চেয়ে ব্যয় অনেক বেশি।’

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) রাজধানীর গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকরা বাজেটের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব এসব কথা বলেন।

সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেন, ‘সরকার সাধারণ মানুষের সমস্যার সমাধান করতে পারছে না। এই বাজেটে সবচেয়ে বড় যে সমস্যা কর্মসংস্থান জেনারেট করার বিষয়ে কিছু নেই। পুরো বাজেট করা হয়েছে চুরির জন্য। এটা বাংলাদেশবিরোধী বাজেট হয়েছে।’

বাজেটে আয়ের উৎস প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘যেসব জায়গায় আয়ের উৎস দেখানো হচ্ছে, তাতে করে সাধারণ মানুষের ওপর সমস্ত বোঝাটা গিয়ে পড়ছে। ব্যয় মেটানোর জন্য তারা যেটা করবে, সেটাও সাধারণ মানুষের ওপর পড়বে। সেটা বিদেশ থেকে ঋণ, দেশের ব্যাংক থেকে ঋণ নেবে।’

‘মানুষ বোঝা টানতে টানতে আর পারছে না। খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। কয়েক দিন আগে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বেড়েছে। বিদ্যুতের দাম বেড়েছে’, বলেন ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘এনার্জি খাতে যে চুরি হয়েছে, সেটা সবাই জানেন। কোথায় রূপপুর প্ল্যান্ট? কোথায় গেলো পায়রা বন্দরের কাজ?’—প্রশ্ন করেন মির্জা ফখরুল।

সরকারি ব্যয়ের চাপ সাধারণ মানুষের ওপর পড়ে, এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘যারা অন্যায় করে তাদের ওপর চাপ পড়ে না। কী করে একজন সরকারি কর্মকর্তা হাজার হাজার কোটি টাকার সম্পদ তৈরি করতে পারে।’

এসময় ফখরুল উল্লেখ করেন, হাজার হাজার শ্রমিক মালয়েশিয়ায় যেতে পারলো না। এটা সরকারের ব্যর্থতা। সবসময় বলছি, এটা লুটেরাদের দেশ, জনগণের সরকার না থাকলে, জবাবদিহি না থাকলে লুটপাট হয়। তারাই (আ.লীগ) সরকারি দল, তারাই বিরোধী দল, তারাই স্বতন্ত্র।’

এসময় বিএনপি নেতা শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD