June 13, 2024, 12:50 pm

বগুড়ায় পশুর চামড়া সংরক্ষণে লবনের সংকট সৃষ্টি করলেই ব্যবস্থা- ডিসি বগুড়া

কোন লবন ব্যবসায়ী যদি লবন সংকটের সৃষ্টি করে তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর চামড়া ব্যবসায়ীরা যদি কৃত্তিম ভাবে দাম কমিয়ে দেয় তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুশিয়ার দেন বগুড়া জেলা প্রশাসক মো: সাইফুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার বিসিক এর আয়োজনে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানিকৃত পশুর চামড়া সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরনে নিরবিচ্ছিন্ন লবন সরবরাহ নিশ্চিত করতে জেলা লবন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিকাল সাড়ে ৩ টায় এ সভায় সভাপতিত্ব করেন বগুড়া জেলা প্রশাসক মো: সাইফুল ইসলাম। সভায় জেলা বিসিকের উপ-মহাব্যবস্থাপক ও জেলা লবন ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব এ কে এম মাহফুজুর রহমান জানান, জেলায় কোরবানির জন্য চাহিদা ৫ হাজার ৩৩ দশমিক ৫৪ মেট্রিকটন। চাহিদার বিপরীতে জেলায় মজুদ আছে ৫ হাজার ৫৭৯ মেট্রিকটন।

তিনি আরো জানান, জেলায় কোরবানিযোগ্য পশুর সংখ্যা (গরু, মহিষ,গাভী) আছে ২ লাখ ৭২ হাজার ৩০৭ টি। আর ছাগল ভেড়া আছে ৪ লাখ ৬২ হাজার ১০৮ টি।

সভার সভাপতি বগুড়া জেলা প্রশাসক বলেন, এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী লবন মজুদ আছে। তিনি হুশিয়ারী করে দিয়ে বলেন, কোন লবন ব্যবসায়ী যদি লবন সংকটের সৃষ্টি করে তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর চামড়া ব্যবসায়ীরা যদি কৃত্তিম ভাবে দাম কমিয়ে দেয় তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। চামড়া ব্যবসায়ীদের সাথে ট্যানারী ব্যবসায়ীদের কোন দেনা-পাওনা থাকে তবে বানিজ্য মন্ত্রনালয়ের সাথে কথা বলে সেটার নিরসন করা হবে।

তিনি আরো বলেন, এবার এতিম খানা, মাদ্রাসা বা কোন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান চামড়া ক্রয় করে হবে তাদের লবন ফ্রি দেয়া হবে।

সভায়, সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচলক (উপ-সচিব) মাসুম আলী বেগ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (পদন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার) মোতাহার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মেসবাউল করিম, বগুড়া পৌর মেয়র রেজাউল করিম বাদশা, বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফিরোজা পারভীন ছাড়াও লবন ব্যবসায়ী ও চামড়া ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD