July 2, 2022, 11:07 am

বগুড়ার শেরপুরে সরকারি প্রাণী সম্পদ খামারের ৩০ লাখ টাকা মূল্যের গাছ লুট

 শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : শেরপুরে ফোরলেন রাস্তা সম্প্রসারণের সময় মহিপুর সরকারি দুগ্ধ ও গবাদী প্রাণী সম্পদ ফার্মের ৩০ লাখ টাকার মূল্যের গাছ লুট করেছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

অভিযোগে জানাযায়, গত এক সপ্তাহ যাবত শেরপুরে সড়ক জনপথ বিভাগ থেকে মাইক প্রচারে নির্দেশ প্রদান করা হয় যে, বগুড়া বনানী মোড় থেকে দক্ষিনে মির্জাপুর বাজার পর্যন্ত সাসেক এর সীমানায় রাস্তার পাশে যে, সকল অবৈধ স্থাপনা, গাছপালা, ঘরবাড়ি ও দোকানপাট আছে তাহা ২২ মে রোববার পর্যন্ত সময়ের মধ্যে অপসারণ করতে হবে। অন্যথায় ওই সকল স্থাপনার মালিককে অপসারনের জন্য অর্থদন্ড করা হবে। নির্দেশক্রমে বগুড়া জেলা প্রশাসন। এমন নির্দেশের পর শেরপুরের স্ব-স্ব স্থাপনা ও ঘরবাড়ির মালিকগণ তাদের অস্থায়ী সম্পদ অপসারণ করে নেয়। এসময় সুযোগ বুঝে গত শুক্রবার ২১ মে সকালে ৭/৮জনের একটি সংঘবদ্ধ চক্র শেরপুরের মহিপুর সরকারি খামারের ভেতরে হাজির হয়ে খামারের গাছ কাঁটতে থাকে। এরপর সওজ এর নামে সাসেক এর পক্ষে মিথ্যা তথ্য দিয়ে শেরপুরের মহিপুর সরকারি দুগ্ধ ও গবাদী প্রাণী সম্পদ খামারের বিশাল বিশাল আয়তনের দামী দামী মেহগণি, ইউকিলিপটার্স, সেগুন, গর্জন ও আকাশমনি গাছ মুহুর্তের মধ্যে গুলো কেঁটে ফেলে। দিনভর শতাধিক গাছের গোড়া কেঁটে ট্রাক ভর্তি করে নিয়ে যায়। বিকেলের দিকে সরকারি খামারের সহকারি পরিচালক মো.ইসমাইল হোসেন সরকারের উচ্চ দপ্তরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, মহিপুর সরকারি খামারের গাছ বিক্রি হয়নি এবং ওই সকল গাছের কোন দরপত্র বা টেন্ডার কেউ জমা দেয়নি। এসময় প্রতারকদের একটি ট্রাক ভর্তি গাছ খামারের গেটে আটকে দেয়া হয়।

এসময় আরও ৬টি ট্রাক ও ৩টি ভটভটি যোগে প্রায় ৩০ লাখ টাকা মূল্যের সরকারি গাছ লুট করে নিয়ে পালিয়ে যায় ওই সংঘবদ্ধ চক্র। এনিয়ে শেরপুর সরকারি দুগ্ধ খামারের সহকারি পরিচালক এর অফিসে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। সহকারি পরিচালকের সেল ফোন ০১৭১২ ১৯১৮১৯ যোগাযোগ করে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। অফিস সুত্রে জানাযায়, মিথ্যা তথ্য দিয়ে একটি সংঘবদ্ধ চক্র দিনে দুপুরে সরকারি গাছ গুলো লুট করে নিয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, গাছ লুটের পর সহকারি পরিচালক আইনী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ঢাকায় অবস্থান করছেন। তারা আরও জানায়, প্রাচীর ঘেরা সীমানার ভেতর থেকে দিনদুপুরে গাছ লুটের ঘটনা রহস্য জনক। ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের পাশ থেকে ৩০ লাখ টাকার গাছ লুটের ঘটনা একটি সাজানো নাটক বলে অনেকেই মন্তব্য করেছেন। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শেরপুর থানায় এব্যাপারে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD