March 1, 2024, 10:09 pm

News Headline :
ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের নির্বাচনে এম রায়হান সভাপতি, ফয়সাল সাধারণ সম্পাদক ইসলামী স্থাপত্য ও ঐতিহ্যের প্রতিনিধিত্ব করে দেশের যে ৫ মসজিদ গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও বিকাশ ছাড়া গণতন্ত্র পূর্ণতা পাবে না : সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বিদ্যুত ও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে বগুড়ায় বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে মন্ত্রিসভায় নতুন ডাক পেলেন ৭ জন নন্দীগ্রামে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে দই, সেই সাথে বেড়েছে হোটেলে খাবারের দাম শেরপুরে ৩টি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা জুমার পূর্বে চার রাকাত সুন্নত পড়া যে কারণে জরুরি গুগল নিয়ে এলো নতুন এআই ফিচার, ব্যবহার করবেন যেভাবে

নৌকা গুম-খুনের প্রতীক, জনগণ ভোট দেবে না : ১২ দলীয় জোট

যমুনা নিউজ বিডি: ১২ দলীয় জোটের নেতারা বলেছেন, আওয়ামী লীগের ‘একতরফা’ নির্বাচনমুখী অবস্থান দেখে মনে হচ্ছে ভোটের দিন কেন্দ্রগুলো তাদের অস্থায়ী কার্যালয়ে পরিণত হবে। আওয়ামী লীগ প্রতারক দল এবং নৌকা গুম-খুনের প্রতীক। সুতরাং জনগণ তাদের ভোট দেবে না।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের দাবি এবং অবরোধের সমর্থনে মিছিল বের করেন দলের নেতাকর্মীরা। জাতীয় প্রেস ক্লাব হয়ে বিজয় নগর ঘুরে পল্টন মোড়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা। এসময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জোটের নেতারা এ কথা বলেন।

১২ দলীয় জোটের নেতারা বলেন, আওয়ামী লীগ এখন দেশের শক্র ও জনগণের শত্রু। তারা দেশের পচনশীল রাজনৈতিক দল এবং নৌকা গুম-খুনের প্রতীকে পরিণত হয়েছে। এবার জনগণ তাদের প্রতিহত করতে রাস্তায় নেমেছে।

বিক্ষোভ মিছিল অংশ নেন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সহ-সভাপতি রাশেদ প্রধান, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামী বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মুফতি মহিউদ্দিন ইকরাম, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ফারুক রহমান ও জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) ভাইস চেয়ারম্যান হান্নান আহমেদ বাবলুসহ অনেকে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবরের মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে ঢাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। সেদিন এক পুলিশ সদস্য নিহত হন এবং অনেকে আহত হন। সমাবেশ ভন্ডুল করার প্রতিবাদে পরদিন হরতাল আহ্বান করে বিএনপি। ওইদিন বিএনপি মহসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর পরের কয়েকদিনে মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু, মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের প্রায় সব কেন্দ্রীয় নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এসব গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এবং সরকারের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে ৩১ অক্টোবর থেকে মোটামুটি লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দিয়ে আসছে বিএনপি এবং এর সমমনা দলগুলো। এর মধ্যে তফসিল ঘোষিত হওয়ায় এর প্রতিবাদে ২ দিন হরতাল পালন করা হয়। এখন নিয়মিতভাবে সপ্তাহের মঙ্গলবার বাদে বাকি চারদিন অবরোধ কর্মসূচি পালন করে আসছে বিএনপি ও তার যুগপৎ আন্দোলনের সঙ্গীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD