May 23, 2024, 12:50 am

বগুড়ায় অবরোধের সমর্থনে মহাসড়কে জামায়াতের শত শত নেতাকর্মী

বিরোধী দলের ডাকা দেশব্যাপী ৪৮ ঘন্টার অবরোধের শেষ দিনে জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীরা বগুড়া-রংপুর, বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়ক এবং শহরের ২য় বাইপাস সড়কে শক্ত অবস্থান নিয়েছে। শত শত নেতাকর্মী ভোর থেকেই মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে অবরোধের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল ও পিকেটিং করছে। সকাল ৭টার দিকে ২য় বাইপাস সড়কের জয়বাংলা হাট এলাকায় অবরোধের সমর্থনে জামায়াতে ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। শত শত জামায়াত কর্মী বিক্ষোভে অংশ গ্রহন করে। এছাড়া নওগা-বগুড়া সড়কের চারমাথার নিকতটবর্তী এলাকা এবং তিনমাথা এলাকায় বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী ভোর থেকেই সড়ক অবরোধ করে পিকেটিং করছে।

জামায়াতে ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ফ্যাসিস্ট সরকারের সময় ফুরিয়ে এসেছে। তারা রাজপথে বিরোধী দলকে মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে গুপ্তহত্যার পথ বেছে নিয়েছে। রাজশাহী, নাটোরের পর গতকাল আওয়ামী সন্ত্রাসীরা রংপুরের পিঠা পুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান, জামায়াত নেতা মাহবুবুর রহমানকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। তারা ভেবেছে এভাবে গুপ্তহত্যা করে জামায়াতে ইসলামীর আন্দোলনকে স্তব্ধ করতে চায়। কিন্তু তারা ভুলে গেছে, জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদসহ জামায়াতের প্রথম সারির নেতাদের হত্যা করেও জামায়াতের অগ্রযাত্রা থামাতে পারেনি। এভাবে গুপ্তহত্যা করেও জামায়াতকে থামানো যাবেনা। তিনি হুশিয়ারি উচ্চারন করে বলেন, অবিলম্বে সারাদেশে জামায়াত নেতাকর্মীদের গুপ্তহত্যা বন্ধ করতে হবে। হত্যাকান্ডে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে শাস্তি দিতে হবে। তিনি বলেন, গোটা জাতি যখন শেখ হাসিনার পদত্যাগের দাবীতে সোচ্চার হয়ে আন্দোলন করছে। ঠিক সেই মুহুর্তে সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় এই গুপ্তহত্যা চালানো হচ্ছে। আইন-শৃংখ লা বাহিনী এখনো কোন খুনীকে গ্রেফতার করেত পারেনি। আইন-শৃংখলা বাহিনীর এই ব্যর্থতা মেনে নেওয়া যায় না। অবিলম্বে গুপ্তহত্যায় জড়িতদের গ্রেফতারের জোর দাবী জানাচ্ছি। -খবর বিজ্ঞপ্তী

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD