May 24, 2024, 7:21 am

বগুড়ায় সাগর হত্যার কথা স্বীকার করল ওঁরা তিন জন

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার জামাদার পুকুরে আলোচিত সাগর ইসলাম হত্যা মামলায় জবানবন্দি দিয়েছেন তিন আসামি। জেলার শাজাহানপুর আমলী আদালতে বিচারক সুমাইয়া সিদ্দিকার কাছে এ হত্যার দায় স্বীকার করেন তারা।

মঙ্গলবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) বগুড়ার কার্যালয়ের এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হক।

আসামিরা হলেন, উপজেলার খাদাস পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত ছলিম উদ্দিনের ছেলে মো. আবু মুছা (৩৮), আজিজার রহমানের ছেলে মো. কালাম ও খাদাস আলুবাড়ী গ্রামের মৃত হায়দার আলীর ছেলে মো. বাবলু হোসেন।

গতকাল সোমবার গ্রেপ্তার তিনজনের মধ্যে বাবুল ও কালাম জবানবন্দি দেন। এর আগের দিন অর্থাৎ রোববার জবানবন্দি দেন আবু মুছা।

পুলিশ জানায়, বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার খাদাস পশ্চিমপাড়া গ্রামের মো. সাগর ইসলামকে হত্যার ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পিবিআই। এর আগে গত ২৯ সেপ্টেম্বর ওই গ্রামের একটি ডোবা থেকে সাগরের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর সাগর নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় সাগরের মা ২৩ সেপ্টেম্বর শাজাহানপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। জিডির সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে পিবিআই। পরে মুসাকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই নিখোঁজ সাগরের রহস্য উৎঘাটন হয়। পরে ঘটনার সাথে জড়িত কালাম ও বাবলুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পিবিআই পুলিশ সুপার কাজী এহসানুল কবির জানান, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। আসামিরা ১ মাস আগে সাগরকে হত্যার পরিকল্পনা করে। গ্রেপ্তারকৃতদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হলে আসামিরা এ ঘটনায় নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে। পরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। সাগর হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD