May 27, 2024, 9:40 am

দিনাজপুরের খানসামায় রাস্তার ধারে পেঁপে চাষে সফল চাষি আলতাফ

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় রাস্তার পাশে বাণিজ্যিকভাবে পেঁপে চাষ করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন কৃষক আলতাফ হোসেন।

খানসামা উপজেলার খামারপাড়া ইউনয়নের ২নং ওয়ার্ডের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের রাস্তার একধারে আধা কিলোমিটার জুড়ে ৪শ’ পেঁপে গাছ লাগিয়েছেন তিনি। এ গাছ লাগাতে তার খরচ হয়েছে ২০ হাজার টাকা। প্রথম বছরে ২ লাখ টাকার পেঁপে বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন এই কৃষক আলতাফ।

জানা যায়, আলতাফ হোসেন ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের গুলজার রহমানের ছেলে। বাবা-ছেলে দুজনই কৃষক। কৃষি বিভাগের পরামর্শে রংপুরের মিঠাপুকুর থেকে থাইল্যান্ডের গ্রিন লেডি জাতের ৪শ’ পেঁপে চারা এনে বাড়ির পাশের রাস্তার ধারে লাগান।

জমিদার নগর থেকে বরলাম বাজার যাওয়ার পথে কাঁচা রাস্তার এক ধারে গাছে ঝুলে থাকা সবুজ পেঁপে দেখে প্রাণ জুড়িয়ে যায় পথচারীদের। গাছগুলো থেকে ১০ মণ পেঁপে সংগ্রহ করে ৮ হাজার টাকা বিক্রি করেছেন তিনি।

বাজারে আলুর দাম বেশি হওয়ায় পেঁপের চাহিদা বেড়ে গেছে। ভালো দামে পেঁপে বিক্রি করতে পারায় তিনি বেশ খুশি। প্রথম ধাপে প্রতি গাছ থেকে ৭-১০ কেজি করে পেঁপে সংগ্রহ করেছেন। গড়ে ১৫ মণের বেশি পেঁপে বিক্রি করেছেন। বাজারে প্রতি মণ পেঁপে তিনি ৮০০-১০০০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন আলতাফ হোসেন।

কৃষক আলতাফ হোসেন বলেন, ‘আমি ছোটবেলা থেকেই বাবার সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করি। এবার নতুন করে পেঁপে চাষ করার পরামর্শ দেন উপজেলা কৃষি অফিসার ইয়াসমিন আক্তার। তার কথামতো রাস্তার পাশে পরিত্যক্ত জায়গার জঙ্গল পরিষ্কার করে পরীক্ষামূলকভাবে ৪শ’ পেঁপে গাছ রোপণ করি।

এ পর্যন্ত ১৫ মণের বেশি পেঁপে বিক্রি করেছি। আগামীতে আমার জমি ও রাস্তা দুই ধারে বেশি করে পেঁপে চাষ করবো। খরচ বাদে এতে লাভ হবে এক লাখ টাকারও বেশি। সারা বছর  এ গাছ থেকে পেঁপে পাওয়া যাবে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ইয়াসমিন আক্তার  বলেন, ‘আলতাফ হোসেন সাড়ে ৬ মাস আগে গ্রিন লেডি পেঁপের চারা লাগিয়েছিলেন কৃষি বিভাগের পরামর্শে।

বর্ষার মৌসুমে অন্য সবজি কম থাকায় পেঁপের চাহিদা বাড়ে। তিনি বিষয়টি মাথায় রেখে পেঁপে চাষ করেছেন। আশা রাখি তিনি পেঁপে চাষ করে ভালো লাভবান হবেন।’

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD