February 4, 2023, 3:34 pm

রৌমারীতে আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা, দল থেকে অব্যাহতি 

রৌমারী প্রতিনিধিঃ মারধরের ঘটনায় কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা রোকনুজ্জমান রোকনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবী। একই অভিযোগে তাকে দল থেকে অব্যাহতি দিয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ।

শনিবার (২১ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে উপ‌জেলা আওয়ামী লী‌গের সাধারণ সম্পাদক আবু হোরায়রা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রোকনুজ্জামান রোকনকে দলীয় কার্যক্রম থেকে অব্যাহতির ঘোষণা দেন। এর আগে রোকনুজ্জামান রোকন ও আসাদুল ইসলামের নামসহ আরও অজ্ঞাত ১২/১২ জতে অভিযুক্ত করে রৌমারী থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক। মামলার তথ্য নিশ্চিত করেছেন রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপ কুমার সরকার।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হোরায়রা লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রৌমারী উপজেলা শাখার ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক রোকনুজ্জামান রোকন কর্তৃক উপজেলার ফুলকারচর নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুন্নবীকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করায় দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠে। এতে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে জেলা আওয়ামী লীগের নির্দেশে রোকনুজ্জমান রোকনকে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদকের পদসহ সকল পদ-পদবী থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবীর দায়ের মামলায় রোকনুজ্জমান রোকনসহ অপর আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসি রূপ কুমার।

নিয়োগ সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত ১৯ জানুয়ারি বিকেলে নুরুন্নবী উপজেলা মাধ্যমিক অফিসে কাজ শেষে বের হলে রোকনুজ্জামান ও আসাদুল ইসলামসহ ১০-১২ জন সন্ত্রাসী তাকে ধরে নিয়ে পার্শ্ববর্তী পলি বাস কাউন্টারে যায়। সেখানে একদফা নির্যাতনের পর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রৌমারী সিজি জামান উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু হোরায়রার কক্ষে নিয়ে আরেক দফা নির্যাতন করেন।

সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা এ দৃশ্য ছড়িয়ে পড়লে জেলাজুড়ে শুরু হয় সমালোচনা। এ ঘটনায় আসাদুল ইসলাম ও রোকনুজ্জামান রোকনের নামে থানায় অভিযোগ করেন প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবী।

এ ব্যাপারে নিজের দোষ অস্বীকার করে রোকনুজ্জামান রোকন জানান, আমাকে দালাল বলায় আমি ক্ষিপ্ত হয়ে প্রধান শিক্ষককে দু-একটা মার দেই।

রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রৌমারী সিজি জামান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আবু হোরায়রা জানান, এটি একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা। বিষয়টি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীকে মো. জাকির হোসেনকে অবগত করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD