October 2, 2022, 6:34 am

বাগদাদে সহিংসতায় নিহত অন্তত ১৫, কারফিউ জারি

যমুনা নিউজ বিডিঃ ইরাকের রাজধানী বাগদাদে রাতভর দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী এবং একজন শক্তিশালী শিয়া ধর্মগুরুর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন।

কর্মকর্তারা বলছেন, মুকতাদা আল-সদরের অনুগত বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে হামলা চালালে আরও ডজনখানেক আহত হয়েছে।

মুকতাদা আল-সদর রাজনীতি থেকে অবসর নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে।

ইরাকের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে আরও কয়েকটি শহরে অস্থিরতা দেখা দেওয়ার পর সেনাবাহিনী দেশব্যাপী কারফিউ ঘোষণা করেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইরাকের রাজধানীতে ছড়িয়ে পড়া সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতায় গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। বেশিরভাগ বিক্ষোভ হচ্ছে শহরের গ্রিন জোনের চারপাশে। এলাকাটিতে সরকারি ভবন এবং বিদেশি দূতাবাস রয়েছে।

নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বলেন, কিছু সহিংসতা পিস ব্রিগেড, মুকতাদা আল-সদরের অনুগত মিলিশিয়া ও ইরাকি সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে সংঘটিত হয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওগুলোতে কিছু বিক্ষোভকারীকে রকেট চালিত গ্রেনেডসহ (আরপিজি) ভারী অস্ত্র ব্যবহার করতে দেখা গেছে।

সহিংসতার মধ্যে ইরাকের সঙ্গে সীমানা বন্ধ করে দিয়েছে ইরান। এছাড়া নাগরিকদের অবিলম্বে দেশটি ছেড়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে কুয়েত।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের একজন মুখপাত্র বলেন, এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং পরিস্থিতি কমাতে অবিলম্বে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাদিমি মন্ত্রিসভার বৈঠক স্থগিত করেছেন এবং সহিংসতা বন্ধে প্রভাবশালী ধর্মগুরু মুকতাদা আল-সদরের হস্তক্ষেপ চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন।

সদরের একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী ইরাকের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আইএনএ-কে বলেন, তিনি সহিংসতা এবং অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত অনশনের ঘোষণা দিয়েছেন।

সূত্র : বিবিসি

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD