October 7, 2022, 6:49 am

নিউজিল্যান্ডে পার্লামেন্ট ভবনের সামনে বিক্ষোভ

যমুনা নিউজ বিডিঃ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করতে প্রায় ২ হাজার সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারী মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। প্রায় ছয় মাস আগে এসব বিক্ষোভকারীরা পার্লামেন্ট প্রাঙ্গণে অবস্থান নিয়েছিল। সেবার সেখান থেকে তাদের জোর করে সরিয়ে দেওয়া হয়। ‘ফ্রিডম অ্যান্ড রাইটস কোয়ালিশন’ এ বিক্ষোভের আয়োজন করে।

বিক্ষোভে অংশ নিতে সারা দেশ থেকে কয়েক হাজার মানুষ রাজধানী ওয়েলিংটনে পার্লামন্ট ভবনের মাঠে জড়ো হয়। এ সময় ভেতরে আইনপ্রণেতারা তাদের নিজ নিজ কাজ করছিলেন। বিক্ষোভকারীদের কারো কারো হাতে স্বাধীনতার দাবিতে লেখা প্ল্যাকার্ড ধরা ছিল। কেউ কেউ কোভিড-১৯ বিধিনিষেধ পুরোপুরি সরিয়ে নেওয়ার দাবি জানান। কৃষকদের জন্য কঠোর পরিবেশগত বিধিবিধান মেনে চলা এবং আঞ্চলিক মালিকানাধীন জলাধারগুলো সরকারের নিয়ন্ত্রণে নিতে নিউজিল্যান্ড সরকারের উদ্যোগের বিরুদ্ধেও বিক্ষোভ দেখান তারা।

হ্যামিলটন শহরের কাছ থেকে বিক্ষোভে অংশ নিতে আসা ড্রানি হানিফ বলেন, আমাদের সরকার, তারা আসলে আমাদের জন্য কাজ করছে না। বিক্ষোভকারীদের আটকাতে পার্লামন্টের সামনে বেষ্টনী দেওয়া হয়। এছাড়া প্রচুর পুলিশ পার্লামেন্টে ঘিরে অবস্থান নেয়। এর আগে গত মার্চ মাসে করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণের বাধ্যবাধকতার বিরুদ্ধে পার্লামেন্টের সামনে অবস্থান নিয়েছিলেন বিক্ষোভকারীরা। যে কারণে রাজধানীতে কয়েক সপ্তাহ জনজীবনে বিঘ্ন ঘটেছিল। পুলিশ ঐ সময় জোর করে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়। বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারও করেছিল। এ দিন সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের বিরোধিতা করে প্রায় আড়ইশ জনের একটি দল পার্লামেন্টের সামনে উপস্থিত হয়। ফেসবুকে এক পোস্টে তারা লেখে, ঘৃণা, হোমোফোবিয়া, গোঁড়ামি এবং চরম ডানপন্থিদের বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো আটকানোই তাদের লক্ষ্য।

পার্লামেন্টের সামনে বিক্ষোভ নিয়ে আগের দিন সোমবার নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অর্ডুর্ন বলেছিলেন, দীর্ঘদিন ধরেই পার্লামেন্ট শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকে স্বাগত জানিয়ে আসছে। তিনি চান এটি চলুক। তবে তিনি মঙ্গলবার বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে দেখা করেননি।

রয়টার্স

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD