October 5, 2022, 4:00 pm

সিরাজগঞ্জ  উল্লাপাড়া উপজেলায় হাজারো প্রকৃতিপ্রেমীর মিলন মেলা সোনাকান্ত ও মানতলা পদ্মবিলে

তারিকুল আলম, সিরাজগঞ্জঃ উল্লাপাড়ার দুটি বিলে গোলাপি রঙে রাঙানো অসংখ্য পদ্ম ফুল ফুটেছে । গোলাপি রঙে সাজানো বিল দুটির দিকে তাকালে যতো দূর চোখ যায় শুধু গোলাপি রঙের আভা। দিনের আলোর স্পর্শে এ রঙ যেন আরও ঝলমলে হয়ে ওঠে। পদ্মের এ সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসছে দূর-দূরান্তের প্রকৃতি প্রেমিরা।

এ বর্ষা মৌসুমে বিল দুটিতে প্রতিদিন হাজারো প্রকৃতি প্রেমির মিলন মেলা লেগে থাকে । সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুল ইউনিয়নের আমডাঙ্গা গ্রামের সোনাকান্ত বিল এবং কয়ড়া ইউনিয়নের বাগোলপুর গ্রামের মানতলা বিল প্রকৃতি প্রেমি ও স্থানীয়দের কাছে বেশ পরিচিত হয়ে উঠেছে । তবে ২ বছর ধরে পর্যটকদের কাছে বিলটি “আমডাঙ্গা পদ্মবিল ও মানতলা পদ্মবিল”নামই পরিচিত হয়ে উঠেছে। কারণ গত দুই বছর ধরে বিলটিতে ফুটছে গোলাপি রঙের অসংখ্য পদ্মফুল। বিলটির দিকে টাকাইলে গোলাপি রং রুপে সাজানো মনে হয়। বর্তমানে গোলাপি আভায় ভরে গেছে বিলটি। সোমবার সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পদ্মবিলের চারপাশে ফুলে ফুলে ভরে গেছে । যতো দূর চোখ যায় শুধু গোলাপি রঙের আভা। দিনের আলোর স্পর্শে এ রঙ যেন আরও ঝলমলে হয়ে ওঠে । এসব পদ্ম দখিনা বাতাসে দোল খাচ্ছে । ফুলের উপর ওড়াউড়ি করছে নানা প্রজাতির পাখি । পাখিদের কিচিরমিচির আওয়াজে মুগ্ধ শিশু, কিশোর, যুবক, বৃদ্ধরা ।

পদ্মের এ সৌন্দর্য উপভোগ করতে বিভিন্ন এলাকার প্রকৃতি প্রেমিরা আসছেন বিলে । তাঁরা চোখ ভরে দেখছেন এবং এ স্মৃতি ধরে রাখতে তুলছেন ছবি । কেও নৌকা ভারা করে বেড়াচ্ছে পদ্মবিলের মাঝদিয়ে । পদ্মবিলে আগত দর্শনার্থীরা জানান, এমন মনমগ্ধকর পদ্ম সচরাচর দেখা যায় না। আর পুরো বিলজুড়ে পদ্মের এমন গোলাপি আভা দেখা সত্যি আনন্দের। তবে বিলে যাতায়াতের রাস্তা না থাকায় অনেক ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে । তবে নৌকায় চড়ে বিল ভ্রমনের আনন্দই অন্যরকম । তারা বলেন, এক সময় আমাদের দেশে অনেক পদ্ম দেখা যেতো। কিন্তু বর্তমান সময়ে বিল জলাশয় ভরাট করে ফেলার কারণে পদ্ম ফুল প্রায় বিলুপ্তির পথে । এ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে আরও যত্নসহকারে বিকশিত করার ব্যবস্থা নেওয়ারো দাবি জানান ।

নৌকার মাঝিরা জানান গত দু বছর ধরে বিলে পদ্মফুল ফোটায় বিভিন্ন এলাকা ঘেকে দর্শনার্থীদের আগমনে তাদের নৌকায় তুলে বিল দিয়ে বেড়ায়ে প্রতিদিন হাজার- বারোশ টাকা আয় করেন । স্থানীয় বাসিন্দা আরিফ , কামরুল  ও জাকির  জানানয়, এই মাঠ সোনাকান্ত ও মানতলা বিল নামে পরিচিত। এ মাঠ দুটিতে শুকনো মৌসুমে ইরি বোরো ধানসহ বিভিন্ন ফসলের চাষ- আবাদ হয় । কিন্তু জায়গাটি দুটি একটু নীচু হওয়ায় বর্ষা মৌসুমে পানি জমে থাকে । গত বছরও পদ্মফল ফুটেছিল। কিন্তু এ বছরের তুলনায় অনেক কম ছিলো । এবছর পদ্মফুলের গাছ বেড়ে এখন সোনাকান্ত বিল প্রায় ৩০ বিঘা ও মানতলা বিল প্রায় ৪০ বিঘা জমিতে ছড়িয়ে পড়েছে । ফলে পদ্মফুলে ভরে গেছে দুটা বিল। বিভিন্ন ব্যক্তি এই ফুল দেখতে এই বিলে আসছেন। তারা আরো জানান, এলাকার কিছু দরিদ্র ব্যক্তিরা এই বিল থেকে পদ্মফুল তুলে নিয়ে বিক্রি করে তাদের সংসার চালায় । উল্লাপাড়া উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা আসাদ বিন খলিল বলেন, দুই বছর হলো বর্ষায় এই বিলে পদ্মফুলের দেখা মিলছে। পদ্মফুলে ঔষধি গুনাগুণও অনেক। কৃষি জমিতে কীটনাশকের ব্যবহার কমে যাওয়ায় শাপলা, পদ্মের দেখা মিলছে। উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. উজ্জ্বল হোসেন বলেন প্রকৃতির এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে অনেকেই আসছেন। যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নত করতে উদ্যোগ নেওয়া হবে। যেন বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ ওই সৌন্দর্য উপভোগ করতে এখানে ঘুরতে আছে পারেন ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD