April 21, 2024, 7:58 am

সিরাজগঞ্জে যমুনার তীব্র ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থ বহু পরিবার এখন বাঁধে

যমুনা নিউজ বিডিঃ  সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার যমুনা নদীর বিভিন্ন স্থানে তীব্র ভাঙ্গনে বহু ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধসহ বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। তারা এখন মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগে প্রকাশ, প্রায় এক যুগ ধরে যমুনা নদীর তীর সংরক্ষণ পুরাতন বাঁধটি সংস্কার না করায় বিভিন্ন স্থানে ধসে যেতে শুরু করেছে। এ কারণে কয়েক সপ্তাহ ধরে তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে। গালা, খুকনি ও জালালপুর ইউনিয়য়ের বেশকিছু গ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে ইতিমধ্যেই অনেক বাড়িঘর ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলিন হয়েছে।

এ ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলো মানবেতর জীবনযাপন করলেও উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ খোঁজ খবর নিচ্ছে না কেউ।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেন বলছেন, কয়েক সপ্তাহ আগে বাঁধে আশ্রয় নেয়া পরিবারগুলোর তালিকা তৈরি করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর জমা দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই এসব ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ১৫ কেজি করে চাল ও শুকনো খাবার দেয়া হয়েছে। ২০০৮-০৯ অর্থ বছরে যমুনার তীর সংরক্ষণ বাঁধটি নির্মাণ করা হয়। তবে এ বাঁধ এখনও রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কার করা হয়নি। প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এতে এ অঞ্চলে তীব্র ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে। এখনও ভাঙন আতঙ্কে রয়েছে বহু পরিবার।

স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (হেডকোয়ার্টার) নাসির উদ্দিন বলেন, ইতিমধ্যেই ভাঙন এলাকায় বালু ভর্তি জিও ব্যাগ নিক্ষেপ করা হয়েছে। ভাঙন পরিস্থিতি এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলাম বলেন, যমুনা নদীর ভাঙ্গন এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা করে প্রয়োজনীয় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে এবং তাদের রোদ-বৃষ্টি থেকে রক্ষা করতে তাবুর ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD