February 28, 2024, 1:03 pm

শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি

যমুনা নিউজ বিডিঃ শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন।দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে দেশ ছেড়ে পালানোর পরই তিনি এ ঘোষণা দেন। এ ছাড়াও শ্রীলঙ্কার পশ্চিমাঞ্চলীয় একটি প্রদেশে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

বুধবার (১৩ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ার দেশত্যাগের খবর জানার পড়ে ক্ষুব্ধ বিক্ষোভকারীরা আবার রাস্তায় নামেন। দ্রুত তারা প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ চাইছেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে জড়ো হতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। সেখানে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেল ছোড়ে।

রাজাপাকসের পালিয়ে যাওয়ার মধ্যদিয়ে পারিবারটির কয়েক দশক ধরে শ্রীলঙ্কা শাসনের অবসান ঘটেছে। শনিবার (৯ জুলাই) জনতা বাসভবনে হামলার পর তিনি আত্মগোপনে ছিলেন।

এর আগে ১৩ জুলাই (বুধবার) পদত্যাগ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন গোতাবায়া। তার ভাই সাবেক অর্থমন্ত্রী বাসিল রাজাপাকসেও দেশ ছেড়েছেন বলে সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

প্রেসিডেন্টের পালিয়ে যাওয়ার খবরটি ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজধানী কলম্বোর প্রধান প্রতিবাদস্থল গল ফেস গ্রিনে বিক্ষোভকারীদের মধ্যে শোরগোল ছড়িয়ে পড়ে। প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের অপেক্ষায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাজার হাজার মানুষ পার্কটিতে ভিড় করেছিল।

কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের জন্য শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রাজাপাকসের প্রশাসনকে দায়ী করে দেশটির মানুষ। কয়েক মাস ধরে তারা প্রতিদিনের বিদ্যুৎ বিভ্রাট এবং জ্বালানি, খাদ্য ও ওষুধের মতো মৌলিক জিনিসের ঘাটতির কারণে ভুগছেন।

দেশটির প্রেসিডেন্ট থাকাকালে কাউকে বিচারের আওতায় আনা যায় না। নতুন প্রশাসন ক্ষমতা গ্রহণের পরে গ্রেপ্তারের সম্ভাবনা এড়াতে পদত্যাগ করার আগে গোতাবায়া বিদেশে পালিয়ে গেলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD