February 1, 2023, 6:18 pm

ফ্রস্ট না কি নন ফ্রস্ট ফ্রিজ, কোনটি সবচেয়ে ভালো?

যমুনা নিউজ বিডিঃ কোরবানি ঈদ সামনে রেখে অনেকেই ইলেকট্রনিক্স পণ্য কিনে থাকেন। বিশেষ করে রেফ্রিজারেটরের চাহিদা এ সময় বেড়ে যায়। তাই এই প্রয়োজনীয় ইলেকট্রনিক্স পণ্যটির বিক্রিও বেড়ে যায় এ সময়। কম দামে ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে চান সবাই।

তাই সাধ্যের মধ্যেই বাজেট রেখে যাতে ভালো ফ্রিজটি কেনার জন্য কিছু বিষয় জানা জরুরি। ফ্রিজের গুণগত মান এর বিভিন্ন প্রযুক্তির উপর নির্ভর করে। এসব বিষয়ে সামান্য জ্ঞান না থাকলে আপনি কখনও ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে পারবেন না! হয়তো দাম দিয়েও ঠকতে পারেন!

ভালো ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে সেটি ফ্রস্ট নাকি নন ফ্রস্ট তা মাথায় রাখা খুবই জরুরি। তবে অনেকেই এ বিষয়ে তেমন জানেন না। আসলে ফ্রস্ট ও নন ফ্রস্ট ফ্রিজের মধ্যে পার্থক্য কী তা জেনেই ফ্রিজ কেনা উচিত।

ফ্রস্ট ফ্রিজ কী?

নাম শুনেই নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন ফ্রস্ট ফ্রিজের ভেতরে বরফ জমে। ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর প্রধানত সরাসরি শীতল রেফ্রিজারেটর। সরাসরি শীতল প্রযুক্তির মাধ্যমে এই ফ্রিজের মধ্যে বরফ জমতে শুরু করে।

ফ্রস্ট ফ্রিজের বাতাসে আর্দ্রতা থাকায় সহজেই জমা হয় বরফ। আবার ফ্রিজের তাপমাত্রা ঠিকমতো সেট না করলেও বরফ জমতে পারে। ডিপ ফ্রিজগুলোই ফ্রস্ট হয় বেশি।

ফ্রস্ট ফ্রিজে রাখা খাবার দীর্ঘদিন ভালো থাকে। বরফ হয়ে যাওয়ার কারণে ওইসব খাবারের মান আগের মতোই থাকে। সাধারণত ফ্রস্ট ফ্রিজে মাছ, মাংস, দুধসহ বিভিন্ন খাবার সংরক্ষণ করে দীর্ঘদিন ভালো রাখা যায়।

আবার দীর্ঘক্ষণ কারেন্ট না থাকলেও ফ্রস্ট ফ্রিজে রাখা খাবার ভালো থাকে। এমনকি ফ্রস্ট ফ্রিজ বিদ্যুৎ সাশ্রয়ীও বটে। তাই বেশিরভাগ মানুষেরই ফ্রস্ট ফ্রিজ কেনার প্রতি ঝোঁক বেশি।

নন ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর

ফ্রস্ট ফ্রিজের ঠিক উল্টোটি হলো নন ফ্রস্ট ফ্রিজ। এ ধরনের ফ্রিজের ভেতরের শীতল বাতাসে থাকে না কোনো আর্দ্রতা। অর্থ্যাৎ শুষ্ক বায়ুর মাধ্যমে শীতল হয় এই ফ্রিজ।

এ ধরনের ফ্রিজের ভেতরে বরফ জমে না। তবে ফ্রিজে রাখা খাবারে যাতে দুর্গন্ধ না হয় সেটি নিশ্চিত করে নন ফ্রস্ট ফ্রিজ।

প্রতিদিনের রান্না করা খাবার, ডিম, সবজি, ফলমূল ভালো রাখতে নন ফ্রস্ট ফ্রিজ বেশি ব্যবহৃত হয়। তবে দীর্ঘক্ষণ কারেন্ট না থাকলে এ ধরনের ফ্রিজে রাখা খাবার নষ্ট হয়ে যায় দ্রুত। আবার বিদ্যুৎও বেশি খরচ হয় নন ফ্রস্ট ফ্রিজে।

ফ্রস্ট নাকি নন ফ্রস্ট কোনটি কিনবেন আপনি?

আপনার পরিবারে যদি ৩-৪ জনের বেশি সদস্য থাকে ও একটি মাঝারি ধারণক্ষমতার ফ্রিজ খোঁজেন, তাহলে ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর নিয়ে চিন্তা করার দরকার নেই।

যেহেতু ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর সরাসরি শীতল প্রযুক্তি ব্যবহার করে, তাই এ ধরনের রেফ্রিজারেটর সর্বনিম্ন ১৫০-২৫০ লিটার পর্যন্ত হয়। ফ্রস্ট ফ্রিজ সাধারণত একক দরজার রেফ্রিজারেটর।

তার চেয়ে আপনি বড় সাইজের মধ্যে ডাবল ডোরের ফ্রস্ট ও নন ফ্রস্ট ফ্রিজ কিনুন। এ ধরনের ফ্রিজের অর্ধেকের বেশি অংশ নরমাল বা নন ফ্রস্ট ও বাকি অংশ ডিপ বা ফ্রস্ট হয়ে থাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD