December 9, 2022, 5:11 pm

ভুয়া সাংবাদিকদের অপকর্মে ফুঁসে উঠছে গাবতলী

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার গাবতলীতে ভূয়া সাংবাদিকদের অপকর্মে ফুঁসে উঠেছেন অনেকে। পত্রিকার সাথে সংশ্লিষ্টতা নেই, এমন অনেক টাউট-বাটপার গলায় বড় বড় ক্যামেরা ও কোমরে অললাইনের কার্ড ঝুলিয়ে অনেককে অনেকভাবে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, স্থানীয় বা জাতীয় পত্রিকার সাথে জড়িত নেই তবে কিছু অনলাইন পত্রিকার কার্ড কিনে ঝুলিয়ে নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে দিনরাত গ্রামে-গঞ্জে ঘুরছেন। কোথায় কে বালু উত্তোলন করছেন কিংবা কে কোথায় সরকারী চাল বা সার বিতরণ করছেন, সেখানে তারা পাখির মতো উড়ে গিয়ে অনিয়মের ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা দাবী করছেন। বিভিন্ন অপরাধ স্পটে গিয়েও নিউজ বন্ধ করার কথা বলে কৌশলে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। ওইসব নামধারী সাংবাদিকরা প্রতিনিয়ত দলবেঁধে বিনা দাওয়াতে বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে ও রাজনৈতিকদলের প্রোগ্র্রামে গিয়ে ক্যামেরায় ফাস মেরে টাকা দাবী করে থাকেন। এতে করে প্রকৃত সাংবাদিকরা ও অনুষ্ঠানের আয়োজকরা বিব্রতবোধ করছেন। এদের মধ্যে অন্যতম হলো, মোজাফ্ফর রহমান ওরফে ভটভটা মোজাফ্ফর, ডাবলু (পত্রিকাবিহীন), সোহেল রানা (সিএনজি চালক) ও গরুচোর তনু। তবে বগুড়া শহর থেকেও কতিপয় ব্যক্তি সিএনজিযোগে এসে নিজেদেরকে সাংবাদিক নেতা পরিচয় দিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। ইদানিং ওইসব ভুয়া সাংবাদিকরা গাবতলীতে গরুচোর ও সিএনজি চালকদের নিয়ে একটি সাংবাদিক সংগঠনও খুলেছেন। এদের অনেকেই সাংবাদিকতায় অজ্ঞ। এদের নিজস্বভাবে নিউজ লেখার কোন মুরোদ নেই। গাবতলী প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের ফেসবুকে পোষ্ট করা ছবি-নিউজগুলো চুরি করে নিজেদের নামে ফেসবুকে পোষ্ট করতে এরা খুব পারদর্শী।

ওইসব ভুয়া সাংবাদিকদের অপকর্মে মানুষ অতিষ্ঠ হলেও প্রকাশ্যে কেউ প্রতিবাদ করছেন না। তবে ভূক্তভোগীরা নীরবে ভালো-মন্দ সকল সাংবাদিকদের নিয়ে কটুক্তি করে আলোচনা-সমালোচনা করছেন। এতে করে প্রকৃত সাংবাদিকগণ ও স্থানীয় প্রশাসন বিবৃতবোধ করছেন। ওইসব হলুদ সাংবাদিকদের সাথে স্থানীয় প্রকৃত সাংবাদিকরা কথা বললে তারা বলেন, “আমরা ফেসবুক থেকে আপনাদের পোষ্টকৃত নিউজ-ছবি নিই-তাতে কী হয়েছে! পারলে আমাদের ঠেকান।

এদিকে ভুয়া সাংবাদিকদের উৎপাত বৃদ্ধি ও গাবতলী প্রেসক্লাব নিয়ে অশালীন মন্তব্য করার ঘটনায় গাবতলী প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ চরম ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন। সেই সাথে পত্রিকার সাথে জড়িত নেই- এমন সব ভুয়া সাংবাদিক হতে সকলকে সাবধান, সচেতন ও প্রতিবাদী হতে বলা হয়েছে। বিবৃতিদাতারা হলেন, গাবতলী প্রেসকাবের সভাপতি রায়হান রানা (দৈনিক বগুড়া ও ভোরের দর্পণ), সাবেক সভাপতি এনামুল হক (করতোয়া), বর্তমান সহ-সভাপতি সাব্বির হাসান (যায়যায়দিন ও চাঁদনী বাজার), সাধারণ সম্পাদক আল আমিন (ইনকিলাব ও উত্তর কোণ), সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান (সাতমাথা ও ঢাকার ডাক), সাংবাদিক মুহাম্মাদ আবু মুসা (দৈনিক বগুড়া ও ভোরের কাগজ), জাহাঙ্গীর আলম লাকী (সকলের খবর ও ভোরের ডাক), আমিনুল ইসলাম আকন্দ (প্রভাতের আলো), নজরুল ইসলাম (জয়যুগান্তর), শামীম (আনন্দ টিভি), তোয়াব (চ্যালেন এস এর ফটোগ্রাফার) রিয়াজ (চ্যালেন এস এর প্রতিনিধি), আরিফুর রহমান বয়েল (মুক্তবার্তা), আতোয়ার রহমান বিপ্লব (মায়ের আঁচল) প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD