October 5, 2022, 3:54 pm

ভারত-ভিয়েতনাম থেকে চাল কিনবে সরকার

যমুনা নিউজ বিডিঃ ভারত ও ভিয়েতনাম থেকে জিটুজি পর্যায়ে ৩ লাখ ৩০ হাজার টন সেদ্ধ ও আতপ চাল কেনার অনুমোদন দিয়েছে সরকার। ভারতের প্রতিটন চালের দাম পড়বে ৪৪৩ দশমিক ৫০ মার্কিন ডলার। ভিয়েতনামের প্রতিটন সেদ্ধ চালের দাম পড়বে ৫২১ মার্কিন ডলার এবং আতপ চাল ৪৯৪ মার্কিন ডলার। বুধবার দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ-সংক্রান্ত দুইটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আবদুল বারিক বলেন, আজকের (বুধবারের) ক্রয় কমিটিতে টেবিলে উত্থাপিত প্রস্তাবসহ মোট ১৫টি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়। সবগুলো প্রাস্তাবই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত সচিব বলেন, টেবিলে উত্থাপিত প্রস্তাবের মধ্যে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের আওতায় ভারত থেকে জিটুজি পর্যায়ে এক লাখ টন ননবাসমতি সেদ্ধ চাল আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৪১৭ কোটি ৫ লাখ টাকা। ৭০ হাজার টন লটের চাল আসবে সমুদ্রবন্দরের মাধ্যমে। প্রতি কেজি চালের দাম পড়বে ৪২ টাকা ১৩ পয়সা। বাকি ৩০ হাজার টন লটের চাল স্থলবন্দরের মাধ্যেমে আসবে। এতে প্রতি কেজি চালের দাম পড়বে ৪০ টাকা ৭০ পয়সা। আর প্রতিটনের দাম পড়বে ৪৪৩ দশমিক ৫০ মার্কিন ডলার। তিনি জানান, ভিয়েতনাম থেকে জিটুজি পর্যায়ে দুই লাখ টন থাই ননবাসমতি চাল এবং ভারত থেকে ৩০ হাজার টন আতপ চাল আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। দুইটি মিলিয়ে একত্রে দুই লাখ ৩০ হাজার টন চাল আমদানি করা হবে। ভিয়েতনামের ননবাসসতি সেদ্ধ চাল প্রতিকেজির ক্রয় মূল্য ৪৯ টাকা ৫০ পয়সা এবং আতপ চাল ৪৬ টাকা ৯৩ পয়সা। প্রতিটন চালে খরচ পড়বে ৫২১ মার্কিন ডলার। এছাড়াও ভারতের ৩০ হাজার টন আতপ চাল প্রতিটন ৪৯৪ মার্কিন ডলারে কেনা হবে। এতে খরচ হবে এক কোটি ২৮ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। সর্বমোট ২ লাখ ৩০ হাজার টন চাল আমদানিতে খরচ হবে ১১ কোটি ৯০ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা এক হাজার ১৩০ কোটি ৬৯ টাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © jamunanewsbd.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD