মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১১:৫২ অপরাহ্ন

News Headline :
মিলনের সুস্থতা কামনা করে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের বিবৃতি বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবীতে বগুড়ার কাগইলে মশাল মিছিল বুড়িচংয়ে এক ইউনিভার্সিটির ছাত্রের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা  সকল নেতাকর্মীর দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে চলা উচিত- মজিবর রহমান মজনু বগুড়া আ. হক কলেজের শিক্ষক পরিষদের নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা নন্দীগ্রামে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের ৭শ’ সদস্যর মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি রফিক ভূঁইয়ার স্মরণ সভা প্রথম স্থান অর্জন গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের কাল থেকে পলিথিনমুক্ত হচ্ছে চট্টগ্রামের তিন কাঁচাবাজার

বরিশালে লঞ্চ চলাচল বন্ধ, দুর্ভোগে হাজারো যাত্রী

যমুনা নিউজ বিডিঃ সারা দেশে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আজ শনিবার দুপুর থেকে লঞ্চ মালিকেরা লোকসানের হাত থেকে বাঁচতে লঞ্চ না চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে লঞ্চভাড়া পুনর্নির্ধারণের দাবি জানিয়েছিলেন লঞ্চ মালিকেরা। এর ফলে বরিশালে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন হাজার হাজার যাত্রী।

আজ বিকেলে বাংলাদেশ নৌযান চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহবুব উদ্দিন আহমেদ (বীর বিক্রম) সাংবাদিকদের বলেন, শুক্রবার দুপুরে মালিক সমিতির এক জরুরি সভায় লঞ্চ মালিকেরা ভাড়া বাড়ানোর দাবি করেন। তখন ওই সভা থেকে ভাড়া বৃদ্ধির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেওয়ার জন্য বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলি। আজ বেলা ১২টার মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবার কথা বলেছিলেন বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান। কিন্তু তিনি কোন সিদ্ধান্ত না দেওয়ায় মালিকেরা লোকসান দিয়ে লঞ্চ চালাবেন না বলে জানিয়েছেন।

এদিকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে ঢাকা থেকে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় অর্ধশত রুটে যাত্রীবাহী কোনো লঞ্চ চলছে না। অপরদিকে দক্ষিণাঞ্চল থেকেও শনিবার কোন লঞ্চ রাজধানীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়নি। শুক্রবার বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর লঞ্চ চলাচল অব্যাহত থাকায় রাজধানীমুখী মানুষের ভোগান্তি কিছুটা কম হয়েছিল। কিন্তু শনিবার লঞ্চও বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বরিশাল ও আশপাশের জেলার যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

সরেজমিনে বরিশাল নৌবন্দর ঘুরে আজ দুপুরে সকল লঞ্চ নোঙর করা দেখো গেছে। অভ্যন্তরীণ রুটের যাত্রীরা এসে ফিরে গেছেন। ঢাকা-বরিশাল রুটের লঞ্চের টিকিট ফেরত দেওয়ার কথা বললেও যাত্রীদের দুর্ভোগের পড়তে হয়।

বাংলাদেশ নৌযান চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও ঢাকা-বরিশাল রুটে চলাচলকারী সুন্দরবন নেভিগেশনের স্বত্বাধিকারী বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, ২০১৩ সালের পর একাধিকবার জ্বালানি তেলের দাম বাড়লেও লঞ্চ ভাড়া সমন্বয় করা হয়নি। চলমান প্রেক্ষাপটে আমরা চাই শতভাগ ভাড়া বৃদ্ধি করা হোক। করোনাকালে আমরা চরম আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। লোকসান দিয়ে আর লঞ্চ চালানো সম্ভব নয়।

ঢাকা বিশেষ ট্রাইব্যুনালের স্টেনোগ্রাফার সাইফুল ইসলাম চৌধুরী বৃহস্পতিবার বরিশালে এসেছিলেন পারিবারিক প্রয়োজনে। শনিবার লঞ্চে তাঁর বুকিং ছিল। কিন্তু লঞ্চ বন্ধ হওয়ায় তিনি সড়কপথে ভাঙা হয়ে ঢাকা যাচ্ছেন মোটরসাইকেলে। এভাবেই দক্ষিণাঞ্চলের হাজার হাজার যাত্রীরা লঞ্চ চলাচল বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগ মাথায় নিয়ে রাজধানীমুখী হচ্ছেন।

এব্যপারে বরিশাল-ঢাকা নৌপথের কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের সহকারী ব্যবস্থাপক রিয়াজুল করীম বেলাল বলেন, মালিক সমিতির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ শনিবার তাঁদের লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে না। অগ্রিম বুকিং নেওয়া কেবিন যাত্রীদের টাকা ফেরত দেওয়া হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com