বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৫ পূর্বাহ্ন

News Headline :
মিলনের সুস্থতা কামনা করে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের বিবৃতি বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবীতে বগুড়ার কাগইলে মশাল মিছিল বুড়িচংয়ে এক ইউনিভার্সিটির ছাত্রের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা  সকল নেতাকর্মীর দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে চলা উচিত- মজিবর রহমান মজনু বগুড়া আ. হক কলেজের শিক্ষক পরিষদের নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা নন্দীগ্রামে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের ৭শ’ সদস্যর মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি রফিক ভূঁইয়ার স্মরণ সভা প্রথম স্থান অর্জন গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের কাল থেকে পলিথিনমুক্ত হচ্ছে চট্টগ্রামের তিন কাঁচাবাজার

শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে একজন আদর্শিক নেতা পেত বাংলাদেশ- অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে সোমবার সকালে পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজে শেখ রাসেলের অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলেজ শাখার শিক্ষক প্রতিনিধি প্রভাষক শহীদুল ইসলাম, স্কুল শাখার প্রতিনিধি আঞ্জুয়ারা খাতুন, প্রভাষক আবুল বাশার, রাহাতারা বেগম, ফুলবর রহমান, এনামুল জাহিদ তিতাস সহ শিক্ষক শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
দিবসটি তাৎপর্য উল্লেখ করে অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে এবছর থেকে ‘শেখ রাসেল দিবস’ হিসেবে দিনটি পালিত হচ্ছে। রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রথমবারের মতো ‘শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস’ প্রতিপাদ্যে দিনটি পালিত হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকারের মাননীয়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই শেখ রাসেল ১৯৬৪ সালের এই দিনে ধানমন্ডির ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি-বিজড়িত বঙ্গবন্ধু ভবনে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কোলে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কিছু বিপদগামী ঘৃণ্য ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সাথে শিশু শেখ রাসেলকেও হত্যা করে। সেসময় শিশু শেখ রাসেল ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন। আজকের এই দিনে শেখ রাসেল এর ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে আমরা তাঁকে গভীর ভালোবাসা ও পরম মমতায় স্মরণ করি এবং তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। শিশু রাসেলের জীবন সম্পর্কে আগামী প্রজন্ম শিক্ষার্থীদের কাছে তুলে ধরতে হবে। শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে একজন আদর্শিক নেতা বাংলাদেশ পেত। তাই তাঁর জন্মদিনকে ‘শেখ রাসেল দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com