বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লায় মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে প্রবাসীর মা-বাবাকে হত্যা; পুত্রবধূ আটক 

কুমিল্লা প্রতিনিধি:  কুমিল্লায় মধ্যরাতে সদর উপজেলার সুবর্ণপুরে  ঘরে ঢুকে স্বামী-স্ত্রীকে হত্যা করা হয়েছে। রোববার (০৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতের সন্তানরা প্রবাসে রয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী নিহতদের পুত্রবধূ শিউলী বেগমকে (২৫) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করছে পুলিশ।
নিহতরা হলেন- উপজেলার পাঁচথুবী ইউনিয়নের সুবর্ণপুর মীর বাড়ির পল্লী চিকিৎসক সৈয়দ বিল্লাল হোসেন (৭৫) ও তার স্ত্রী সফুরা বেগম (৫৫)।
কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর রাত ৩টায় বার্তা২৪.কম’কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয় সূত্র জানায়, রোববার রাত আনুমানিক ১২টার দিকে ৭/৮ জনের একদল দূর্বৃত্ত পল্লী চিকিৎসক ডা. সৈয়দ বিলাল হোসেনের ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় দুর্বৃত্তরা স্বামী-স্ত্রী দুজনের হাত পা বেঁধে ঘরে ষ্টাম্প পেপার খোঁজ করে। একপর্যায়ে আলমারির চাবি খুজে না পেয়ে তাদের দুজনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যান। তাৎক্ষণিকভাবে  হত্যাকারীদের কাউকে শনাক্ত করতে পারেননি পরিবারের সদস্যরা।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিহতদের কয়েকজন প্রতিবেশী বলেন, ‘প্রায় দুই মাস আগে সৈয়দ বিলাল হোসেনের বাড়িতে ডাকাতি হয়। ওই সময় লুট হওয়া মালামাল কিছুদিন পরে পুত্রবধূ শিউলী বেগমের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। পরে শিউলি স্বীকার করেন, ডাকাতির ঘটনা তিনি সাজিয়েছিলেন। এরপর এমন কাজ আর কখনও করবেন না জানিয়ে শিউলি ফের শ্বশুরবাড়িতে আসেন। স্থানীয়দের ধারণা, হত্যাকাণ্ডের পেছনেও তিনি জড়িত থাকতে পারেন।’
এ বিষয়ে পাঁচথুবী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধে তাদের হত্যা করা হয়েছে।
কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতদের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় নিহতদের পুত্রবধূ শিউলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com