শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১০ অপরাহ্ন

শুভ জন্মদিন স্যার ডন ব্র্যাডম্যান

যমুনা নিউজ বিডিঃ টেস্টে ৫০ গড়ে রান করলেই রীতিমতো সেরা ব্যাটসম্যানদের তকমা পান ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু এ সংস্করণের ক্রিকেটেই স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের গড় ৯৯.৯৪! তাই তাকে শুধুমাত্র সেরা ব্যাটসম্যানের উপমা দিলে এক প্রকার অপরাধই হবে হয়ত কেননা তিনি শুধুমাত্র নিজের সময়ের একজন সেরা ব্যাটসম্যানই ছিলেন না বরং এখন পর্যন্ত সর্বকালের সেরা! সাবেক এ অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তির আজ ১১৩তম জন্মদিন। ১৯০৮ সালের এই দিনে অস্ট্রেলিয়ায় নিউ সাউথ ওয়েলসের কুটামুন্ড্রাতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে ব্যাট হাতে ১৯২৮ থেকে ১৯৪৮ সাল পর্যন্ত খেলেছিলেন ব্র্যাডম্যান। সে পথ ধরেই ইতিহাসে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে স্বীকৃতি পান এ ডানহাতি।
ছোট থেকেই ক্রিকেটের প্রতি আলাদা একটা টান ছিল ব্র্যাডম্যানের। সে পথ ধরে এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান মাত্র ১৯ বছর বয়েসে প্রথম-শ্রেনির ক্রিকেটে অভিষেক হয়। প্রথম ইনিংসে শতক হাঁকান ব্র্যাডমান। এই ম্যাচ থেকেই তার ‘ফুট ওয়ার্ক’ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। ওই মৌসুমের শেষ ম্যাচে শেফিল্ড শিল্ড চ্যাম্পিয়ন ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে সিডকি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নিজের প্রথম শতক করেন ব্র্যাডম্যান। অবশেষে দুই বছরের মধ্যেই জাতীয় দলে খেলার জন্য ডাক পান তিনি। শেফিল্ড শিল্ডের খেলায় ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো অপরাজিত ৩৪০ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন। এরফলে, এসসিজিতে তিনি নতুন রেকর্ড গড়েন। ১৯২৯-৩০ মৌসুমে তিনি ১১৩.২৮ গড়ে রান তুলেন।

তবে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের প্রথম ম্যাচেই ১৮ এবং ১ রান করেছিলেন ব্র্যাডম্যান। তাই দ্বিতীয় টেস্টের ১২তম খেলোয়াড় হিসেবে মাঠের বাইরে বসতে হয় তাকে। দ্বিতীয় টেস্টে সুযোগ না মিললেও পরের টেস্টে আবারও দলে সুযোগ মেলে তার। এবার দেখিয়ে দেন তিনি কি ধাতু দিয়ে গড়া। ইংল্যান্ডের দাপুটে পেসারদের সামনে বুক চিতিয়ে প্রথম ইনিংসে ৭৯ রানে আউট হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ১১২ রান। আর তাতেই বনে যান ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ সেঞ্চুরিয়ান। এই তো নক্ষত্রের আলো ছড়ানো শুরু এরপর কেবল উজ্জ্বলই হয়েছেন কখনো এ আলোয় ছায়া পড়েনি। হেসেছে তার ব্যাট আর গড়েছে নতুন রেকর্ড। একে একে সবাইকে টপকে ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে স্বীকৃত হয়েছেন।

১৯৪৮ সালে ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট খেলার আগে ব্র্যাডম্যানের গড় ছিল ১০১ দশমিক ৩৯। শেষ ইনিংসে মাত্র ৪ রান করলে তার গড় থাকত ঠিক ১০০। কিন্তু আফসোস সেই ৪টি রান থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন তিনি। আর তার গড় থমকে গিয়েছিল ৯৯ দশমিক ৯৪তে। যা এখন পর্যন্তও কেউ স্পর্শ করতে পারেনি।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com