শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:০৫ অপরাহ্ন

News Headline :
ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষে আহত ২ শতাধিক বগুড়া মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিতদের শপথ গ্রহণ বগুড়ায় বিসিকের শ্রমিকেরা পেল করোনার টিকা নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দল ঘোষণা বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালে শুরু হলো স্টেনটিং কার্যক্রম সেনাবাহিনীর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য আয়োজন রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৭৫ নন্দীগ্রামে কৃষকের আলুর ক্ষেত নষ্ট করলো দূর্বৃত্তরা সাংবাদিক রিয়াজ চৌধুরীর ওপর সন্ত্রাসী হামলায় বিএফইউজে-ডিইউজের উদ্বেগ-নিন্দা দেশনেত্রী খালেদা জিয়া আমাদের স্বাধীনতার প্রতীক আমাদের স্বার্বভৌমত্বের প্রতীক..সাবেক এমপি লালু

সেনাসহ মাঠে নেমেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা

যমুনা নিউজ বিডিঃ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে আজ থেকে মাঠে রয়েছেন সেনাসদস্যরা। বুধবার (৩০ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে সশস্ত্র বাহিনীকে মাঠে নামানোর সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। একইভাবে সরকারের বিধিনিষেধ কঠোরভাবে বাস্তবায়নে পুলিশের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন আইজিপি। বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে মাঠে রয়েছে পুলিশ, র‌্যাব, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও কোস্ট গার্ড। মন্ত্রিপরিষদ থেকে জারি করা বিধিনিষেধে বলা হয়েছে, খুবই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। আর এ নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কঠোরভাবে এসব বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে পুলিশের পাশাপাশি সশস্ত্র বাহিনীসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীগুলোকেও মাঠে নামানো হয়েছে।

সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’-এর আওতায় বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন থাকবে। তারা কিভাবে দায়িত্ব পালনের করবে সেটা আজই বোঝা যাবে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে শুধু বলা হয়েছে,   কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে বিধি-নিষেধ কার্যকর করার জন্য ‘ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ এর আওতায় ১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত সশস্ত্র বাহিনীকে মোতায়েন রাখা হবে। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট স্থানীয়ভাবে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সমন্বয় করবেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বিধি-নিষেধ চলাকালীন সরকারি, আধা সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ বিধানের আওতায় মাঠ পর্যায়ের কার্যকর টহল নিশ্চিত করার জন্য সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ প্রয়োজনীয় সংখ্যক সেনা মোতায়েন করবে। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট স্থানীয় সেনা কমান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টি নিশ্চিত করবেন। জেলা পর্যায়ে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে সমন্বয় সভা করে সেনা-বিজিবি-পুলিশ-র‌্যাব ও আনসার নিয়োগ এবং টহলের অধিক্ষেত্র, পদ্ধতি ও সময় নির্ধারণ করবেন। সেই সঙ্গে বিশেষ কোনও কার্যক্রমের প্রয়োজন হলে সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো এই বিষয়ে মাঠ পর্যায়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করবে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com