সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন

বগুড়ায় একদিনে করোনায় ৮জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৯৮

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত বগুড়া।  গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।  এটিই জেলায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এই নিয়ে গত নয়দিনে ৩৬জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে মরণঘাতী এই ভাইরাস। ৩৬জনের মধ্যে বগুড়ার ১৪জন, নওগাঁর ৭জন, জয়পুরহাটের ১৩জন এবং গাইবান্ধা ও নাটোর জেলার একজন করে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

মারা যাওয়ার তালিকায় নতুন যুক্ত হওয়া ৮জন হলেন- বগুড়া সদরের সেতারা বেগম(৭৮) ও আবুল কালাম আজাদ(৭৪), জয়পুরহাটের হাসনা বেগম(৬৫),  লুৎফর রহমান(৬৫) মামুন সরদার(৪৫) আহাদ আলী(৭৫) ও নূর জাহান(৩০) এবং নওগাঁর রিয়াজউদ্দীন(৬০)।

এদের মধ্যে সেতারা, হাসনা ও লুৎফর রহমান টিএমএসএস হাসপাতালে, আবুল কালাম আজাদ, নূর জাহান ও রিয়াজউদ্দীন  শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ(শজিমেক)  হাসপাতালে এবং আহাদ আলী ও মামুন সরদার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

এছাড়া  জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ৩৫৪ নমুনার ফলাফলে নতুন করে ৯৮জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার ২৭ দশমিক ৬৮শতাংশ। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ২৫জন। নতুন আক্রান্ত ৯৮জনের মধ্যে সদরের ৬০জন, আদমদীঘি ৭জন, গাবতলী ৮জন, সারিয়াকান্দি ২জন, দুপচাঁচিয়ায় ৩জন, কাহালু ২জন, নন্দীগ্রাম ৫জন, শেরপুর ২জন এবং ধুনটের একজন আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার অনলাইন ব্রিফিংয়ে  এসব তথ্য জানান ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন। এর আগের দিন জেলায় ৩৮২ নমুনায় ৬২জন করোনায় শনাক্ত হয়েছিলেন।

ডা. তুহিন জানান, ২৩জুন শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৪৭টি নমুনায় ৬৫জনের, জিন এক্সপার্ট মেশিনে ১৪নমুনায় ৫জনের এবং এন্টিজেন পরীক্ষায় ৬৩ নমুনায় ৯জনের পজিটিভ এসেছে। এছাড়া টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ৩০নমুনায় ১৯জন করোনায় পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

 

তিনি আরও জানান, এই নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হলেন ১৩ হাজার ১৫২জন এবং সুস্থতার সংখ্যা ১২ হাজার ২৯৮জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া নতুন করে ৮জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ৩৬৫জনে ঠেকেছে এবং বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন ৪৯১জন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com