বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:০০ অপরাহ্ন

বগুড়ায় কঠোর লকডাউনের প্রথম দিনেই ঢিলেঢালা

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক কঠোর বিধি নিষেধ শুরু হয়েছে। করোনা সংক্রমণের উর্ধগতির কারণে জেলা প্রশাসন গত শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে এক সপ্তাহের জন্য বগুড়া সদর ও পৌর এলাকায় কঠোর ও সর্বাত্মক বিধি নিষেধ আরোপ করে। লকডাউনের প্রথম দিনে কিছু কিছু সময় অনেকটা ঢিলেঢালাভাব দেখা গেছে। সকাল থেকে শহরের সেউজগাড়ী, সাতমাথা, দত্তবাড়ী, মালতিনগর, বৌবাজার, গোহাইল রোডসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শহরের প্রধান সড়কে সীমিত আকারে হলেও ইজিবাইক ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও প্যাডেলচালিত যান চলাচল করছে। শহরের বড় বড় রাস্তায় উল্লখযোগ্য সংখ্যক প্রাইভেট গাড়ি চলতে দেখা গেছে। জেলা প্রশাসনের কঠোর লকডাউনের মধ্যেই বগুড়া জেলার সঙ্গে উপজেলার মানুষের চলাচল ছিল অনেকটাই স্বাভাবিক।

তবে লকডাউনকে কেন্দ্র করে সিএনজি চালকরা বেশি ভাড়া আদায় করছে। চেলোপাড়া থেকে গোলাবাড়ি অভিমুখি সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক সোহাগ জানান, পুলিশের তেমন নজরদারি না থাকায় সকাল থেকে তারা এই রুটে সিএনটি অটো রিকশা চালাচ্ছেন। এমন দিনে ভাড়াটা একটু বেশি পাওয়া যায়। শহরের বিভিন্ন মোড়ে ও রাস্তায় যানবাহন চলাচল করার ব্যাপারে কর্তব্যরত পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা জানান, তাদের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মানুষ বের হচ্ছে। বার বার বুঝিয়ে ফেরত পাঠালেও তারা আবারও যাত্রী পরিবহন করছে। তবে বৃষ্টির মধ্যে অনেকটা হাল্কা মেজাজে তাদের রাস্তায় পাহারা দিতে দেখা গেছে। অন্যদিকে শহরের মার্কেট, শপিংমল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও প্রায় প্রতিটি পাড়া মহল্লায় ভেতরে দোকাপাট খোলা রেখে ব্যবসায়ীদের ব্যবসা পরিচালনা করতে দেখা গেছে। এসব এলাকায় যানবাহনও চলাচল করেছে বিনাবাধায়।
মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়ে কাজ করছে। এছাড়াও বিধি নিষেধ মানার সরকারি আদেশ মানতে শহর ও সদর এলাকার বিভিন্ন স্থানে ৪টি মোবাইল কোর্ট সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করেছে। এসময় সংক্রমণ রোধ প্রতিরোধ আইনে জরিমানাও করা হয়।

লকডাউনের ও করোনা নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে বগুড়ার সিভিল সার্জন ডা. গওসুল আজিম জানান, করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকারি বিধিনিষেধ কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে আইনশৃঙ্ঘলা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। বিধিনিষেধ ছাড়াও করোনা নিয়ন্ত্রণে জেলায় করোনা পরীক্ষা বাড়ানোর বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। উপজেলা পর্যায়েও র‌্যাপিড এ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য কঠোর বিধি নিষেধ শুরু হওয়ার প্রথম দিন আজ রবিবার বগুড়ায় ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৭৪ জন শনাক্তসহ করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com