বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন

News Headline :
বগুড়ায় বেগম রোকেয়া দিবসে ৫ নারী পেলেন জয়িতা সম্মাননা বগুড়ায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত সিরাজগঞ্জ কামারখন্দ উপজেলায় দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত সাপাহারে বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সম্বর্ধনা নন্দীগ্রামে ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীদের সাথে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের মতবিনিময় সভা রাজশাহীর ছাত্রলীগ নেতা শাহিন হত্যায় ৯ জনের ফাঁসি, ২২ জনের যাবজ্জীবন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কুমিল্লা এলাকা পরিচালক নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক সৈয়দ আহাম্মদ লাভলু দুর্নীতিবাজদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে : রাষ্ট্রপতি বগুড়ার ধুনটে ইউপি সদস্য মুক্তা তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাখলেন বগুড়ায় মুজিব মঞ্চ পরিষ্কার করল ছাত্রলীগ কর্মীরা

৬ জাতি নিয়ে আঞ্চলিক নিরাপত্তাবলয় গড়বেন এরদোগান

যমুনা নিউজ বিডিঃ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান মঙ্গলবার আজারবাইজান সফর করেছেন। এ সময় তিনি তুরস্কসহ ৬টি দেশ নিয়ে একটি আঞ্চলিক নিরাপত্তার বলয় গড়ার ওপর জোর দেন।

এরদোগান বলেন, এ অঞ্চলে একটি নিরাপত্তাবলয় গড়তে তিনি তুরস্ক, রাশিয়া, ইরান, আজারবাইজান, জর্জিয়া ও আর্মেনিয়াকে নিয়ে একটি প্লাটফরম তৈরি করতে চান।

২৮ বছর পর আজারবাইজান আর্মেনিয়ার কাছ থেকে ঐতিহাসিক সুসা অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পাওয়ার পর প্রথম কোনো বিদেশি নেতা হিসেবে শহরটি পরিদর্শন করেন এরদোগান।

তিনি সুসা এলাকা পরিদর্শন করে এর পুনর্গঠনের আশ্বাস দেন। এ সময় তিনি আজারবাইজানের প্রেসিডেন্টের ইলহাম আলিয়েভের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা করে এ অঞ্চলের শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য একটি সামরিক বলয় গঠন করবেন।

আর্মেনিয়ার কাছ থেকে মুক্ত হওয়া আজেরি ভূখণ্ড সুসা পুনর্গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে চায় আঙ্কারা।

এ ছাড়া এই সফরে এরদোগানের উপস্থিতিতে দুই দেশের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা সংক্রান্ত চুক্তি হয়। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আজেরি প্রেসিডেন্ট এলহাম আলিয়েভও উপস্থিত ছিলেন।

গত বছর তুরস্কের প্রত্যক্ষ সমর্থন নিয়ে আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে কারাবাখ অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পায় আজারবাইজান।

আজারবাইজান সফরে স্ত্রী ছাড়াও এরদোগানের সফরসঙ্গীদের মধ্যে ছিলেন তুর্কি প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার, তুর্কি সরকারের যোগাযোগ বিভাগের পরিচালক ফাহরেতিন আলতুন, প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন, ক্ষমতাসীন দল জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বা একে পার্টির মুখপাত্র ওমর সেলিক এবং ন্যাটো পার্লামেন্টারি অ্যাসেম্বলিতে তুর্কি প্রতিনিধিদলের প্রধান ওসমান আকান বাক।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com