বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন

আমরা শত্রু নই, এক জাতি: ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী

যমুনা নিউজ বিডিঃ জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেত। গতকাল রবিবার দেশটির পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটির মধ্য দিয়ে ক্ষমতা গ্রহণ করেছেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ১২ বছর পর বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যুগের অবসান হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগামী দুই বছরের জন্য ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েছেন বেনেত। ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনি দেশটির ক্ষমতায় থাকবেন। এরপর চুক্তি অনুযায়ী পরবর্তী দুই বছরের জন্য ইয়াশ আতিদ পার্টির প্রধান ইয়ার লাপিদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন এই নেতা।

রবিবার ভোটাভুটিতে জয়লাভের পর নাফতালি বেনেত বলেন, এটা শোকের দিন নয়। এখানে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সরকার পরিবর্তন হয়েছে। এতটুকুই।

আমাদের সাধ্যের মধ্যে আমরা সকল কিছুই করবো, যেন কেউ ভীত না হয়। আর যারা আজ আনন্দ মিছিল বা উদযাপন করার চিন্তা করছেন তাদের উদ্দেশে বলবো, অন্যের কষ্টে নৃত্য করো না। আমরা শত্রু নই; বরং এক জাতি।

জানা গেছে, ইসরায়েলি সংসদের ৬০ জন সাংসদ নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন। পক্ষে ভোট পড়েছে ৫৯টি। এতে করে তার সরকার ক্ষমতা হারালো।

নেতানিয়াহুকে সরাতে আটটি বিরোধী দল মিলে নতুন জোট গঠন করেছে। এই জোটে বামপন্থি, উদারপন্থি, কট্টরপন্থি, জাতীয়তাবাদী ও ধর্মীয় দল রয়েছে। এ ছাড়া দেশটির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সরকার গঠনে যুক্ত হয়েছে একটি আরব ইসলামি দল। পার্লামেন্টে মাত্র একটি আসনে এগিয়ে থেকে নতুন সরকারের দায়িত্ব নিয়েছে বিরোধী জোট।

ডানপন্থী ইহুদি ধর্মীয় দল ইয়ামিনার প্রধান নাফতালি বেনেত রাজনীতিতে প্রবেশের পূর্বে প্রযুক্তি খাতে মিলনিয়ার ছিলেন। তারও আগে তিনি ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সহাকারী হিসেবে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। আর এখন তাকেই সরিয়ে প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। ইসরায়েলি দখলদারিত্বের কট্টর সমর্থক এবং ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের বিরোধী হিসেবেও পরিচিত এই নেতা।

 

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com