বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৫:০৫ পূর্বাহ্ন

বিশ্ববিদ্যালয়ের অনিয়ম নিয়ে ফেসবুকে লিখলেই ব্যবস্থা!

যমুনা নিউজ বিডিঃ করোনা সংক্রমণ রোধে গণপরিবহন, দূরপাল্লার বাস ও দোকানপাট-শপিংমল খুললেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নিজের বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগ কোনও বিরুপ মন্তব্য করলেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছে ট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আনোয়ার বেগমের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপিতে বলা হয়েছে ‘বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হতে পারে’এমন কিছু ‘সামাজিক মাধ্যমে’ না লেখার জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার গণমাধ্যমকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে এমন কোনো মন্তব্য শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখবে তা হতে পারে না। আমি বিজ্ঞপ্তিটি সমর্থন করি।

বুধবার (০৯ জুন) এ বিষয়ে অধ্যাপক আনোয়ারা বেগম গণমাধ্যমকে বলেন, এটি কোনো নিষেধাজ্ঞা নয়। অনেক সময় বিভাগের শিক্ষার্থীরা আবেগপ্রবণ হয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক কিছু লিখে থাকে। এতে বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়। তাই একটি সতর্কতামূলক বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, শিক্ষার্থীরা তাদের ভোগান্তি নিয়ে লিখতে পারবে না এটি বাকস্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ। কারণ গত চার মাসেও স্নাতকের রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয় কোন অনুগত দাস তৈরির কারখানা নয়।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com