বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

সিরাজগঞ্জ  কাজিপুর উপজেলায়  প্রশাসনের হস্তক্ষেপে দুঃস্থরা ফেরত পেলেন টাকা

তারিকুল আলম, সিরাজগঞ্জঃ সরকারি সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর জিটুপি’র মাধ্যমে বয়স্ক, বিধবা ভাতাসহ অন্যান্য ভাতার প্রদানকৃত অর্থ উত্তলন করতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। এতে প্রকৃত উপকার ভোগীরা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। লাভবান হচ্ছেন দোকানীরা। এমন ঘটনা ঘটেছে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলায়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তড়িৎ পদক্ষেপ নেন।

শনিবার (২৯মে) সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের হাটশিরা বাজারের ফ্রেক্সিলোড ব্যবসায়ী ভুলু মিয়ার দোকানে  মহল্লাদার পাঠান। এসময় ওই দোকানী নিজের ভুল বুঝতে পেরে তাৎক্ষণিক মাইকিং করে এলাকার সুবিধাভোগীদের দোকানে নিয়ে আসেন। এসময় টাকা উত্তোলনকারী ২১জন সুবিধাভোগীর নিকট থেকে নেয়া অতিরিক্ত ২শ থেকে ৩শ করে টাকা ফেরৎ দেন তিনি। এরকম ভুল আর হবেনা মর্মে ওই দোকানী ইউএনও’র নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, ওই দোকানী প্রতারণা করে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছিলেন। টাকা ফেরৎ দিতে বাধ্য করা হয়েছে। পরবর্তি নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত ওই দোকান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

এদিকে রাতেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি সামাজিক মাধ্যমে উপজেলার মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সাথে জড়িত এজেণ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে একটি পোস্ট দিয়েছেন। এতে তিনি উলে­খ করেন সম্প্রতি  ভাতার টাকার ক্যাশ আউটে অতিরিক্ত খরচ নেওয়া হচ্ছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে যা মোটেও কাম্য নয়। এটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সুতরাং এ ধরনের প্রতারণা থেকে দূরে থাকুন। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে সমাজের সচেতন মহলকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com