রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্থার বিচার ও মুক্তির দাবিতে পাবনায় বিক্ষোভ সমাবেশ

পাবনা প্রতিনিধিঃ সচিবালয়ে দৈনিক প্রথম আলোর অনুসন্ধানী সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্থা করে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মুক্তি না দিয়ে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে ও তাঁর নিঃশর্তে মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছেন পাবনায় কমর্রত স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে শহরের আব্দুল হামিদ সড়কের পাবনা প্রেসক্লাবের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করা হয়। পরে ট্রাফিক মোড়ে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এসময় দুই হাতে লোহার শিকল পড়ে সহকর্মী আটকের প্রতিবাদ জানান প্রথম আলোর পাবনা অঞ্চলের ফটো সাংবাদিক হাসান মাহমুদ।

পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদের পরিচালনায় সমাবেশ থেকে বক্তারা দ্রুত রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহারেরও দাবি করা হয়। এছাড়া রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত স্বাস্থ্য বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জেবুন্নেছাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের আইনের আওতায় এনে গ্রেপ্তার করে উপযুক্ত শাস্তি দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা। রাষ্ট্রের গুরুত্বপুর্ণ স্থান সচিবালয়ে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে হেনস্থা ও শারিরীকভাবে নির্যাতন করা হয় জাতীয় আন্তর্জাতিকভাবে পুরস্কারপ্রাপ্ত দেশপ্রেমিক একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিককে। এর চেয়ে ন্যাক্কারজনক কাজ আর কি হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তারা।

বিক্ষোভ সমাবেশের গণমাধ্যমকর্মিরা বলেন, সচিবালয়ে প্রবেশ করার জন্য যথাযথ অনুমতিপত্র রয়েছে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের। তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নানা অনিয়ম, বিশৃঙ্খলা আর দুর্নীতি নিয়ে ধারাবাহিকভাবে পত্রিকায় বিশেষ প্রতিবেদন আকারে লিখে যাচ্ছিলেন। পুর্ব পরিকল্পিতভাবে তাকে আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়েছে। এসময় একজন নারী তাকে গলা চেপে হত্যার চেষ্টা করেছে, যেটা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও ঘৃণিত কাজ। মামলা প্রত্যাহারসহ রোজিনার মুক্তি যতদিন না হবে, ততদিন সাংবাদিকরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বক্তারা আরও বলেন, দেশের কোন জেনারেল হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে রোগীরা সেবা পায় না। তাদেরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। ভিআইপিদের সুবিধা দিয়ে চিকিৎসা ব্যবস্থা ধ্বংস করা হয়েছে। স্বাস্থ্য খাতের সীমাহীন দুর্নীতির কারণে স্বাস্থবিভাগ ইতোপূর্বেই দেশের জনগণের রোষানলে পড়েছে। বাজেটের ৫ শতাংশ কাজও করা হয় না। কানাডায় ৩টি, পূর্ব লন্ডনে ১টি এবং ঢাকায় ৪টি বাড়ি, গাজীপুরে ২১ বিঘা জমি, নামে-বেনামে আছে ৮০ কোটি টাকার এফডিআর আছে জেবুন্নেছার অধীনে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন সমাবেশের বক্তারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের উত্তরাঞ্চলের ব্যুরো চীফ উৎপল মির্জা, প্রথম আলোর প্রতিনিধি সারওয়ার মোর্শেদ উল্লাস, পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহবুব মোর্শেদ বাবলা, একুশে টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি রাজিউর রহমান রুমি, বাংলাদেশ টুডের আব্দুল হামিদ খান, ডেইলি স্টারের জেলা প্রতিনধি, আহমেদ হুমায়ুন কবির তপু, ৭১ টেলিভিশনের মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল, এটিএন নিউজের রিজভী জয়, ঢাকা পোস্টের জেলা প্রতিনিধি রাকিব হাসনাতসহ সামাজিক রাজনৈতিক সুুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

পাবনা প্রেসক্লাবের কর্মকর্তারা বলেন, পাবনা প্রেসক্লাব সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে আরো দুই দিনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বুধবার মানববন্ধন ও জেলা কারাগারের সামনে স্বেচ্ছায় কারাবরণ কর্মসূচি, বৃহস্পতিবার কলম বিরতি ও প্রতিকী অনশন ঘোষণা করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com