শনিবার, ৩১ Jul ২০২১, ০৮:২৬ অপরাহ্ন

বগুড়ায় দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিল জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ঃ বগুড়ার সাবগ্রাম এলাকার দরিদ্র কৃষক সোহরাব হোসেনের (৬৫) ২৮ শতাংশ জমির ধান কেটো দিল জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক মুকুল ইসলাম ও জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বৃহস্পতিবার বগুড়া সদরের সাবগ্রামের চান্দপাড়া মাঠে মুকুল ইসলাম ও জেলা ছাত্রলীগের কর্মীরা ধান কেটেছেন। এসময় কথা কৃষক সোহরাব হোসেনের বলেন, ২৮ শতক ভিঁউয়ের (জমির) ধান কাটতে ৩ হাজার ট্যাকা লাবগি। যেটি হামার দিনচলা কটিন, সেটি ধান কাটা সপন দ্যাকার লাগান। মুকুল হামাকেরে পাশের পাড়ার ছোল। হামাক কালকে আতোত দ্যাকা করেক আে ধান কাটপি, আবার ঘরে তুলে দিবি। হামার বিশশাস হয়নি। সকালে যখন ওরা আসলো হামি ভাববার পাইনি। একন ওরা ধান কাটিচ্চে, আবার বাড়িত লিয়ে যাবি দিবার।

ধান কাটার বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক মুকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সবসময় মানুষের কল্যানে কাজ করে থাকে। আমরা জানতে পারি কৃষক সোহরাব হোসেন অর্থাভাবে ধান কাটতে পারছেন। তাই আমরা সবাই মিলে ধান কেটে দিচ্ছি। ধান কাটতে আসা ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মী রোজা আছে। তারা সকলেই রোজা রেখে ধান কাটছেন ধান কাটা শেষে আমরা কৃষকের বাড়িতে সেই ধান পৌছে দিব। যাতে তাকে আলাদা করে ধান নিয়ে যেতে অর্থের ব্যয় না করতে হয়।

তিনি আরও জানান, গতবছরও আমরা রোজা থাকা অবস্থায় বেশকয়েকজন কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিব। এবছরও তার ব্যতিক্রম হবে না।

কৃষক সোহরাব হোসেনের জমিতে মুকুল হোসেনের সাথে আরও ধান কাটেন জেলা ছাত্রলীগের কর্মী ইউসুফ, শামীম, জীম, নুর, মোমিন, আহাদ, নাবিল, শাহরিন, শুভ ও মেহেদী।
তারা সকলেই গতবছর দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিয়েছিল। এবছরও তারা দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিবে বলেও জানিয়েছে।

এবছর লক ডাউনের শুরু থেকে জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক মুকুল ইসলাম শহরের ছিন্নমূল মানুষের মাঝে সেহেরি বিতরণ করে যাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com