শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন

বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩০ লাখ ২৩ হাজার ছাড়াল

যমুনা নিউজ বিডিঃ করোনা মহামারির থাবায় বিশ্বজুড়ে সংক্রমণ ও প্রাণহানি অব্যাহত রয়েছে। ভয়াবহভাবে বেড়েই চলেছে ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাড়ে ১১ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সাত লাখ ৮২ হাজার।

এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যাও ছাড়িয়েছে ১৪ কোটি ১২ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩০ লাখ ২৩ হাজার। ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বেড়েছে সংক্রমণ ও প্রাণহানির সংখ্যা।

এছাড়া, একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৮২ হাজার ৩৭৩ জন। এতে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ কোটি ১৩ লাখ ৫৩৮ জনে।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ২৩ লাখ ৭২ হাজার ১১৯ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৫ লাখ ৮০ হাজার ৭৫৬ জন মারা গেছেন। লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী এক কোটি ৩৯ লাখ ১৩৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭১ হাজার ৮৮৯ জনের।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত এক কোটি ৪৭ লাখ ৮২ হাজার ৪৬১ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৭৭ হাজার ১৬৮ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫২ লাখ ৬০ হাজার ১৮২ জন, রাশিয়ায় ৪৬ লাখ ৯৩ হাজার ৪৬৯ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৩ লাখ ৮৫ হাজার ৯৩৮ জন, ইতালি ৩৮ লাখ ৫৭ হাজার ৪৪৩ জন, তুরস্কে ৪২ লাখ ১২ হাজার ৬৪৫ জন, স্পেন ৩৪ লাখ ৭ হাজার ২৮৩ জন, জার্মানি ৩১ লাখ ৩৭ হাজার ৯০৭ জন এবং মেক্সিকোতে ২৩ লাখ ৪ হাজার ৯৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ৫৯৩ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৫ হাজার ১৯৩ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ২৬০ জন, ইতালিতে এক লাখ ১৬ হাজার ৬৭৬ জন, তুরস্কে ৩৫ হাজার ৬০৮ জন, স্পেনে ৭৬ হাজার ৯৮১ জন, জার্মানিতে ৮০ হাজার ৫২৬ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ১২ হাজার ২২৮ জন মারা গেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও। বিশ্ব এখন করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com