বৃহস্পতিবার, ২৪ Jun ২০২১, ১২:২২ পূর্বাহ্ন

মাওলানা মামুনুলের রিসোর্ট কাণ্ডে ‘পুরুষশুন্য’ কয়েক গ্রাম!

যমুনা নিউজ বিডিঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় রিসোর্টে মামুনুল হক এক নারীসহ অবরুদ্ধ হওয়ার খবর পেয়ে তার সমর্থকরা সুনামগঞ্জের ছাতক থানায় হামলা ভাঙচুর এবং পাচঁ পুলিশ সদস্যকে আহত করার ঘটনায় গ্রেপ্তার আতঙ্কে পুরুষশুন্য রয়েছে উপজেলার কয়েকটি গ্রাম।ওই দিনের সেই ঘটনার পর গত রবিবার রাতে হামলার পর ৯৫ জনের নাম উল্লেখ করে মোট ৯০০ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়।

মামলার পর সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের গনেশপুর, রহমতপুর, ছড়ারপাড়, বাহাদুরপুর, পৌর শহরের চরেরবন্দসহ কয়েকটি গ্রাম এখন পুরুষশুন্য। গ্রেফতারের ভয়ে এসব গ্রামের গ্রামের বাসিন্দারা আতঙ্কে বসতভিটা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। গ্রেপ্তারের ভয়ে দিনের বেলায় হাতেগোনা কয়েকজন পুরুষকে দেখা গেলেও রাতে সে সংখ্যা নেমে আসে শূন্যের কোটায়। বর্তমানে গ্রামের বেশিরভাগ বাড়িতে নারী ও শিশুরাই শুধু অবস্থান করছেন।

থানা পুলিশের নিয়মিত অভিযানে এলাকাজুড়ে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপারের (ছাতক সার্কেল) নেতৃত্বে প্রায় অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য ছাতক পৌর শহরসহ গনেশপুর গ্রামে মহড়া দিতে দেখা গেছে।

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, এলাকার পরিস্থিতি এখন শান্ত আছে। যারা দোষী নয় তারা গ্রামে আসতে বাঁধা নেই। এ ছাড়া কেউ যেন এসে গ্রামে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে না পারে সে জন্যে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার (৩ এপ্রিল) হেফাজতের নেতা মামুনুল হক এক নারীকে নিয়ে সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে যান। এর পরে সেখানে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। সে খবর সুনামগঞ্জের ছাতককে ছড়িয়ে পরলে তার সমর্থকরা মিছিল বের করে পরে মিছিল থেকে ছাতক থানায় হামলা ভাঙচুর এবং পাচঁ পুলিশ সদস্যকে আহত করার ঘটনা ঘটে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com