বুধবার, ২৮ Jul ২০২১, ০৪:২২ অপরাহ্ন

বিক্ষোভে উত্তাল আয়ারল্যান্ড, উদ্বিগ্ন যুক্তরাজ্য

যমুনা নিউজ বিডিঃ আয়ারল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে বাস ছিনতাই করে পুড়িয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। সহিংসতার এই ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। উত্তর আয়ারল্যান্ডে এক সপ্তাহ ধরে সহিংসতা চলছিল। পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা মারা হচ্ছিল। এবার একটি বাস হাইজ্যাক করে তা পুড়িয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। সম্প্রতি সহিংসতা হচ্ছে উত্তর আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্টের যুক্তরাজ্যপন্থিদের এলাকায়। সেখানে এক সপ্তাহ ধরে পুলিশের ওপর হামলা হচ্ছে।

একটি ভিডিয়োতে দেখা যায়, বাসের গায়ে পেট্রোল বোমা জাতীয় কিছু মারা হচ্ছে। এরপরই বাসটিতে আগুন লেগে যায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের একাধিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গণমাধ্যমের একজন চিত্রগ্রাহককেও আক্রমণ করা হয়েছিল। সম্প্রতি উত্তর আয়ারল্যান্ডের বেশ কয়েকটি শহরে বিক্ষোভকারীরা পুলিশের গাড়িতে পেট্রোল বোমা মেরেছে, পাথর ছুড়েছে। এ দিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, উত্তর আয়ারল্যান্ডে সহিংসতার ঘটনায় তিনি খুব উদ্বিগ্ন। গত শুক্রবার থেকে সোমবার সহিংসতা উত্তর আয়ারল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে পড়ে। মুখোশধারী কয়েকজনকে গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিতে ও পেট্রোল বোমা ছুড়তে দেখা গেছে। পুলিশও বিক্ষোভকারীদের ধরপাকড় করছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে আসার (ব্রেক্সিট) ফলে উত্তর আয়ারল্যান্ড ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে বাণিজ্য বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। তাতেই বেজায় চটেছেন যুক্তরাজ্যপন্থিরা। অতীতে আয়ারল্যান্ডের স্বাধীনতাকামী ও যুক্তরাজ্যপন্থিদের মধ্যে বেলফাস্টে প্রবল সহিংসতা হয়েছে। দীর্ঘ বিরোধের জেরে এক হাজার ৬০০ জন নিহত হয়। এরপর ১৯৯৮ সালের গুড ফ্রাইডে চুক্তির পর পরিস্থিতি শান্ত হয়। যদিও সাম্প্রতিক সহিংসতা আবার পুরনো স্মৃতিকে ফিরিয়ে আনছে। বেলফাস্ট টেলিগ্রাফের সাংবাদিক এলিসন মরিস লিখেছেন, যুক্তরাজ্যপন্থিদের ক্ষোভের কারণ হলো, তারা মনে করছেন ব্রিটিশ সরকার তাদের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। কয়েক প্রজন্ম ধরে তাঁরা ব্রিটিশ সরকারকে সমর্থন ও সাহায্য করে এসেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com