সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন

News Headline :
শেখ রাসেলের জন্মদিনে বগুড়া জেলা আ’লীগের কর্মসূচি ঘোষণা প্রথমবার জাতীয়ভাবে পালিত হচ্ছে ‘শেখ রাসেল দিবস’ নওগাঁর সাপাহারে বিএমএসএফ’র পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান  সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বগুড়ায় শ্রমিক লীগের মানববন্ধন ইউপি নির্বাচনে ভোট চুরির চেষ্টা করলে জনতা হাত গুঁড়িয়ে দেবে : হেলালুজ্জামান লালু বগুড়ায় ৫ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার দৈনিক বগুড়ার ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বগুড়ায় করোনার টিকা নেয়ার সময় বৃদ্ধার চেইন ছিনতাই, ৫ নারী গ্রেফতার মুজিব শতবর্ষ বগুড়া জেলা দাবা লীগ উদ্বোধন হবু স্ত্রীকে ৬০ কেজি সোনার গহনা উপহার দিলেন যুবক!

কিশোরের হাতে যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছিলেন সুস্মিতা

যমুনা নিউজ বিডিঃ নারী তারকাদের ভক্তদের হাতে যৌন হেনস্তার ঘটনা নতুন নয়। মাঝে মাঝেই এমন পরিস্থিতির শিকার হতে হয় তাদের। এবার বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন জানলেন এক কিশোরের হাতে যৌন হেনস্তা হওয়ার কথা। দুই বছর আগে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরের হাতে যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছিলেন সুস্মিতা সেন। দীর্ঘদিন পর সেই বিষয়টি আবার সামনে আনলেন তিনি। হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে সরব সুস্মিতা সেন সম্প্রতি মুম্বাইয়ে নারী সুরক্ষা নিয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন। সেখানে কথা প্রসঙ্গে সাবেক এ বিশ্বসুন্দরী বলেন, “ভারতবর্ষের প্রতিটা মেয়ের জানা কীভাবে নিজের আত্মরক্ষা করতে হয়। একপর্যায়ে নিজের সঙ্গে হয়ে যাওয়া একটি যৌন হেনস্তার অভিজ্ঞতাও শেয়ার করেন তিনি।”

২০১৮ সালে ‘মি টু’ আন্দোলন নিয়ে বলিউডে তোলপাড় শুরু হলে সুস্মিতাও তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছিলেন। তবে ওই ঘটনায় বিনোদন জগতের কেউ যুক্ত ছিলেন না। সুস্মিতা জানান, মুম্বাইয়ে এক পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে প্রবেশের সময় হঠাৎই নিজের শরীরে অবাঞ্ছিত হাতের স্পর্শ অনুভব করেন সুস্মিতা। তৎক্ষণাৎ ক্ষিপ্রতার সঙ্গে পেছন ফিরে ভিড়ের মধ্যে থেকে ওই হাত ধরে টেনে আনেন দোষীকে। চমকে যান সুস্মিতা! দেখেন তার সামনে ১৫ বছরের একটি কিশোর দাঁড়িয়ে!

কিন্তু সবার সামনে কিছু না বলে ছেলেটিকে এক পাশে নিয়ে আসেন। নায়িকার ভাষ্য, তিনি চাইলেই চিৎকার করতে পারতেন। কিন্তু করেননি, কারণ এতে ছেলেটির পুরো জীবন নষ্ট হয়ে যেত। তিনি একটা সুযোগ দিতে চেয়েছিলেন নিজের দোষ স্বীকারের। ভিড়ের থেকে দূরে নিয়ে এসে ছেলেটিকে ক্ষমা চাইতে বলেন সুস্মিতা। প্রথম দিকে অস্বীকার করলেও, পরে বেগতিক বুঝে অপরাধ স্বীকার করে সে।

সুস্মিতা মনে করেন, এখনো অনেক বাড়ির লোকেরাই তাদের ছেলেদের শেখান না, কীভাবে মেয়েদের যোগ্য সম্মান দিতে হয়। এমনকি হেনস্তার শিকার হয়ে নারীরা যে প্রতিবাদ করতে পারে, সেটাও অনেক পুরুষের কল্পনাতীত! কিন্তু প্রত্যেক নারীর উচিত দোষীকে যোগ্য সাহচর্য শেখানো। তিনি সেই কাজটাই করেছিলেন। যাতে ছেলেটি লজ্জিত হয়। নিজের ভুল শুধরে নেওয়ার একটা সুযোগ পায়।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com