বৃহস্পতিবার, ২৪ Jun ২০২১, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন

জয়পুরহাটে শিথিলভাবে চলছে লকডাউন

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ গত বছরের তুলনায় অনেক শিথিলভাবে চলছে এবারের লকডাউন।করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়ায় করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে ২দিন থেকে শুরু হয়েছে টানা সাত দিনের লকডাউন। আর এ বিষয়ে সব ক্ষেত্রে নানা ধরনের বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন ও জারি করেছে সরকার। বন্ধ থাকবে সব ধরনের যাত্রীবাহী গণপরিবহন। পাশাপাশি বাজার-মার্কেট, হোটেল-রেস্তোরাঁয় দেওয়া হয়েছে বিধিনিষেধ। তবে ঔষধের দোকান, ঔষধ ও জরুরী খাদ্য পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত যানবাহন, সংবাদপত্রসহ সব ধরনের জরুরি সেবা থাকবে বিধি-নিষেধের বাইরে। এসব নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত।
লকডাউনের মধ্যে মানুষের চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকার কথা থাকলেও, দূর পাল্লার যানবাহন ছাড়া অভ্যন্তরীণ রুটে প্রাইভেট কার, সিএনজি, রিক্সা বা অন্যান্য যানবাহন চলতে দেখা গেছে।সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী গন পরিবহন সহ ভারি যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকলেও রিক্স্যাভ্যান, অটো রিকসা তে গাদাগাদি কওে যাত্রীদের চলাচল করতে দেখা গেছে।
সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারী অফিসগুলো খোলা অবস্থায় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যথা সময় পর্যন্ত অফিসে উপস্থিত ছিলেন।
জেলা শহরসহ জেলার আশপাশের অফিসে বা গন্তব্যে পৌছাঁর জন্য পরিবহনের অপেক্ষা করতে দেখা গেছে ভূক্তভোগীদের।
অন্যদিকে জেলার দৈনন্দিন কাঁচা-বাজারগুলোতে ক্রেতাদের স্বাভাবিক সময়ের তূলনায় কম ভীর দেখা গেছে, জেলা ও উপজেলা শহরগুলো কম দোকান-পাট খোলা থাকলেও গ্রামের হাট-বাজারগুলোতে দোকান-পাট খোলা দেখা যায়।
জেলা প্রশাসক শরীফুল ইসলাম জানান, লক-ডাউন অবস্থায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ ও ব্যাব সদস্যরা সার্বক্ষনিক টহল দিচ্ছে। এ ছাড়া সাধারন মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করছেন বলেও জানান জেলা প্রশাসক।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com