শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৮:২৯ অপরাহ্ন

News Headline :
সিরাজগঞ্জ চৌহালী উপজেলায় যমুনা নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ-০১ নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী চরকার আদিজন্ম ভারত, ইউরোপের শিল্পে যেভাবে জনপ্রিয় হলো রাজবাড়ীতে অস্ত্র ও গুলি সহ দুই সন্ত্রাসী গ্রেফতার আফগানিস্তানে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬০, নিখোঁজ ১৫০ পরিদর্শন ও নিরীক্ষা বিভাগের ডিডিকে পবিত্রতা অনুশীলনের জন্য এমওই প্রদান আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সীমান্তে ফের সংঘাত, নিহত ৩ আর্মেনীয় সেনা ৫ আগস্টের পরও বিধিনিষেধ বহালের সুপারিশ স্বাস্থ্য অধিদফতরের গোবিন্দগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ যুবক নিহত টেকনাফে ১ হাজার ইয়াবাসহ মাদক কারবারি আটক

সাড়ে ৩ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত

যমুনা নিউজ বিডিঃ আরও সাড়ে ৩ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বুধবার (১০ মার্চ) অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের আনা এ সংক্রান্ত প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে।

সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি বিশ্ব মার্কেট থেকে এলএনজি কেনার দুটি পৃথক প্রস্তাবও অনুমোদন দিয়েছে।

এর আগে গত বুধবার একই কমিটি জরুরি ভিত্তিতে সাড়ে ৫ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির জন্য খাদ্য মন্ত্রণালয়ের আরেকটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়। এর আগে ভারত থেকে চাল আমদানির জন্য একই ধরনের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছিল।

চাল আমদানির সর্বশেষ অনুমোদনের পরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, যেকোনো সম্ভাব্য খাদ্য ঘাটতির ঝুঁকি হ্রাস করতে সরকার এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

বৈঠকে দুটি কমিটি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে সম্পর্কে ব্রিফ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আসলে আমরা দেশে খাদ্য সংকটজনিত ঝুঁকি রোধে উদ্যোগ নিয়েছি।’

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের আনা প্রস্তাব অনুযায়ী-ভারতের পাঞ্জাব স্টেট সিভিল সাপ্লাই করপোরেশন থেকে দেড় লাখ টন সেদ্ধ চাল, থাইল্যান্ডের সাকোন্নাক্ষণ ন্যাশনাল ফার্মার্স কাউন্সিলের কাছ থেকে দেড় লাখ টন একই ধরনের চাল এবং ভিয়েতনামের সাদার্ন ফুড করপোরেশনের কাছ থেকে ৫০ হাজার টন আতপ চাল আমদানি করবে খাদ্য অধিদপ্তর।

‘চালের দাম এখনও নির্ধারণ করা হয়নি এবং এগুলো জি টু জি চুক্তিতে আমদানি করা হবে,’ উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ওই সব দেশের দূতাবাসগুলোকে সরকারের সাথে দাম নিয়ে আলোচনা করতে বলা হয়েছে।

দাম চূড়ান্ত করার পরে আমদানির প্রস্তাবগুলো চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির কাছে আবারও তোলা হবে, তিনি উল্লেখ করেন।

পাশাপাশি বিশ্ব বাজার থেকে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির বিষয়ে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের আওতাধীন রাষ্ট্রায়ত্ত পেট্রোবাংলার পৃথক দুটি প্রস্তাবও অনুমোদন পেয়েছে।

প্রস্তাব অনুযায়ী- এওটি ট্রেডিংয়ের কাছ থেকে প্রতি এমএমবিটিইউ ৮ দশমিক ৩৪৫ ডলারে ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি কেনা হচ্ছে। ভ্যাট, ট্যাক্সসহ এতো মোট খরচ হচ্ছে ২৭৮.৭০ কোটি টাকা। আর সিঙ্গাপুরের ভিটল এশিয়া থেকে একই পরিমাণ কেনা হবে। প্রতি এমএমবিটিইউ এলএনজির দাম পড়বে ৭ দশমিক ২১ ডলার। ভ্যাট, ট্যাক্সসহ এতে মোট খরচ হচ্ছে ২৪৮.৫৩ কোটি টাকা।

ক্রয় কমিটির বৈঠকে নির্মাণাধীন ‘কুড়িগ্রাম (দাসেরহাট)-নাগেশ্বরী-ভুরুঙ্গামারী-সোনাহাট স্থল বন্দর সড়ককে জাতীয় মহাসড়কে উন্নীতকরণ’- এ সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের একটি প্রস্তাবও অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ১৩৬.২৪ কোটি টাকার চুক্তিটি মঈনুদ্দিন লিমিটেডকে দেয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com