মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:২৭ অপরাহ্ন

উত্তর কোরিয়ায় কোমায় থাকা সেই মার্কিন ছাত্রের মৃত্যু

যমুনা নিউজ বিডি ঃ উত্তর কোরিয়ায় ১৫ মাস কারাগারে ছিলেন অটো ওয়ার্মবিয়ের। তার মধ্যে এক বছরই তিনি কোমায় ছিলেন।
গত মঙ্গলবার ওই অবস্থাতেই তাঁকে তাঁর পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়া হয়। এরপর সিনসিনাটির একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। এর এক সপ্তাহের মধ্যে মারা গেলেন তিনি।

অটো ওয়ার্মবিয়েরের পরিবারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ায় নির্যাতনের শিকার হয়ে মারা গেছেন তিনি।

বিবৃতিতে বলা হয়, দেশে আসার পর অটো ওয়ার্মবিয়ের মুখে কিছু বলতে না পারলেও তাঁর চেহারায় কিছুটা হলেও প্রশান্তির আভাস ফুটে উঠেছিল। তাঁর বাবা সাংবাদিকদের এর আগে বলেছিলেন, “তাকে আটক করে যা করা হয়েছে সেই ভয়াবহ ব্যাপার মেনে নেওয়া কঠিন। ”

অটো ওয়ার্মবিয়ের বয়স হয়েছিল ২২ বছর। বন্ধুদের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ায় গিয়েছিলেন অবকাশ যাপনে। সেখানে হোটেলের একটি সাইনবোর্ড চুরি করার অভিযোগে তাকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। সে সময়ই বিষয়টি ব্যাপক আলোচিত হয়। কিন্তু গত এক বছর ধরে তাঁর কোমায় থাকার বিষয়টি তাঁর পরিবারের কাছেও গোপন রাখা হয়েছিল।

উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বচিউলিজম নামের এক অসুখে তাঁর এ অবস্থা হয়েছে। কিন্তু এ অসুখ কীভাবে হলো তার কোনো ব্যাখ্যা নেই। তবে দেশে ফেরার পর চিকিৎসকদের একটি প্যানেল তাঁকে পরীক্ষার পর মস্তিষ্কে আঘাতের কথা উল্লেখ করেন। এদিকে, এই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়াকে একটি নিষ্ঠুর রাষ্ট্র বলে উল্লেখ করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media


© All rights reserved ©  jamunanewsbd.com