Home / আন্তর্জাতিক / হিমালয়ের বরফ দ্রুত গলছে, চিন্তিত বিজ্ঞানীরা

হিমালয়ের বরফ দ্রুত গলছে, চিন্তিত বিজ্ঞানীরা

যমুনা নিউজ বিডিঃ হিমালয়ের প্রকৃতিতে জমছে রাশি রাশি ধূলা। ফলে অবস্থা হতে চলেছে ভয়ানক। এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশের ধূলার জেরে দ্রুত গলে যাচ্ছে হিমালয়ের বরফ। একটি নতুন গবেষণায় এমনই দাবি করেছে বিশেষজ্ঞরা। গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে, পশ্চিম হিমালয়ের উঁচু পর্বতমালার ওপর ধুলা বয়ে যাওয়ায় দ্রুত গলছে তুষার।

ন্যাচার ক্লাইমেট চেঞ্জের রিপোর্ট অনুসারে, পর্বতমালার ওপর দিয়ে উড়ে আসা ধূলিকণা তুষার গলানোর প্রক্রিয়াটিকে ত্বরান্বিত করতে পারে। এর কারণ, ধূলিকণা সূর্যের আলো শোষণ করে আশপাশের এলাকা উত্তপ্ত করে তোলে। ফলে ওই এলাকার তাপমাত্রা বেড়ে গিয়ে গলতে শুরু করতে পারে বরফ। উদ্বেগের বিষয় হলো দ্রুত বরফ গলে যাওয়ার ফলে তা প্রাকৃতিক বাস্তুশাস্ত্রেও প্রভাব পড়ে। হিমবাহ থেকে নেমে আসা মিষ্টি পানি নদীর তীরে প্রবাহিত হয়। এটি স্বাভাবিক তুষার গলানোর প্রক্রিয়া থেকে আসে। একটি অনুমান অনুসারে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রায় ৭০০ মিলিয়ন মানুষ তাদের মিষ্টি পানির প্রয়োজনের জন্য হিমালয় বরফের ওপর নির্ভর করে। কিন্তু মুশকিল হল, দ্রুত যদি হিমালয়ের বরফ গলতে শুরু করে তবে এই নদীগুলোতে পানির পরিমাণ বেড়ে যাবে। ফলে এতকাল ধরে চলে আসা এক বাস্তু পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা। গঙ্গা, ব্রহ্মপুত্র, ইয়াংজি এবং হুয়াংসহ ভারত ও চীনের অনেকগুলো প্রধান নদী হিমালয় থেকে উৎপন্ন। সুতরাং, এই অঞ্চলে তুষার গলা বিপজ্জনক হিসেবে চিহ্নিত হতে পারে। কিন্তু কেন এমন আশঙ্কা? বিজ্ঞানীরা বলছেন, আফ্রিকা ও এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলের ধূলা রাশি খুব উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছে, ফলে তা হিমালয় অঞ্চলে তুষার গলে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় বিস্তৃত প্রভাব ফেলেছে।

Check Also

ফখরিযাদে হত্যাকাণ্ড: ইরান কেন এক্ষুণি প্রতিশোধ নেবার কথা বলছে না?

যমুনা নিউজ বিডিঃ ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিজাদে হত্যাকান্ডের প্রতিশোধ নেবার অঙ্গীকার করেছেন দেশটির …

error: Content is protected !!
%d bloggers like this:

Powered by themekiller.com