Home / সারাদেশ / বগুড়া / লাকী আক্তারকে পুলিশী হয়রানি, শাসকগোষ্ঠীর স্বৈরতান্ত্রিক দর্শনের প্রতিফলন বগুড়া ছাত্র ইউনিয়ন

লাকী আক্তারকে পুলিশী হয়রানি, শাসকগোষ্ঠীর স্বৈরতান্ত্রিক দর্শনের প্রতিফলন বগুড়া ছাত্র ইউনিয়ন

যমুনা নিউজ বিডি ঃ আজ ১২ জুলাই ২০১৮, ভোর রাতে আনুমানিক রাত সাড়ে ৩টায় বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের প্রাক্তন সভাপতি, গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক লাকী আক্তারের শান্তিনগরের বাসায় বিনা অনুমতিতে, সুনির্দিষ্ট কোন অভিযোগ ছাড়া পুলিশী তল্লাশির নামে বাসায় প্রবেশ করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় ডিবি পুলিশের অর্ধশতাধিক সদস্য লাকী আক্তারের বাসায় সামনে ও বাসায় ভেতরে অবস্থান করে এক ভীতসন্ত্রস্ত পরিস্থিতি তৈরি করে। এ সময় তল্লাশির নামে লাকী আক্তারের বাসা তছনছ করা হয় এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ৩য় বর্ষের (সম্মান) শিক্ষার্থী সোহেল ইসলামকে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সম্পৃক্ততার জন্য জিজ্ঞাসাবাদের নামে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়। লাকী আক্তারের বাসায় বিনা অনুমতিতে পুলিশের প্রবেশ, পুলিশী হয়রানির ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।
  বিবৃতি প্রদান করেন ছাত্র ইউনিয়ন বগুড়া জেলা সংসদের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য মো: নাদিম মাহমুদ,সহ- সভাপতি মিঠুন পাল,আয়েন উদ্দীন,সাধারণ সম্পাদক শাওন পাল,সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন,বিঞ্জানও প্রযুক্তি সম্পাদক আকতার উজ- জামান টুটুল,স্কুল সম্পাদক শ্যামল কবিরাজ,সরকারি আজিজুল হক কলেজ সংসদের সভাপতি পিয়াস মোদক,সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম,সাংগঠনিক সম্পাদক শুভ কুমার দে,প্রচার সম্পাদক সাগর পারভেজ,শাহ সুলতান কলেজ শাখার আহ্বায়ক বিপুল পাল,যুগ্ম আহ্বায়ক পবিত্র মাহাতো,সুজয় কুমার পাল,পলিটেকনিক শাখার আহ্বায়ক প্রনুতি ভূষণ সোহাগ,যুগ্ন আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ, জয়ন্ত কুমার অভি,সাংস্কৃতিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক আরমানুর রশিদ,যুগ্ন আহ্বায়ক সঙ্গীতা সরকার,চপল সাহা,প্রমিতা বড়ুয়া, কাহালু উপজেলা শাখার আহ্বায়ক মহিন্দ্র চন্দ্র,যুগ্ন আহ্বায়ক পলাশ,ধুনট উপজেলা শাখার আহ্বায়ক সোহাগ,যুগ্ন আহ্বায়ক রাসেল,সারিয়াকান্দি উপজেলা সংসদের সভাপতি ফাইন মিয়া,সাম্য সাগর সাহা সহ বগুড়া জেলার ছাত্র ইউনিয়নের সকল নেতাকর্মী।
এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে এহেন কর্মকাণ্ড কোনভাবেই কল্পনা করা যায় না। বিনা অনুমতিতে, সুনির্দিষ্ট কোন অভিযোগ ছাড়া আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কোনো অবস্থাতেই এই ধরনের অভিযান পরিচালনা করতে পারে না। কোটা সংস্কারের আন্দোলন একটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন। এই আন্দোলনে সম্পৃক্ততার অভিযোগে জবাবদিহিতার জন্য রাতদুপুরে ভীতসন্ত্রস্ত পরিবেশ তৈরি করে পুলিশী তল্লাশি ও আটকের ঘটনা সম্পূর্ণরূপে বেআইনী ও অগণতান্ত্রিক। কোটা সংস্কার আন্দোলনকে দমাতে সরকার ও সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠন যে স্বৈরতান্ত্রিক ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে তা অতিতের সকল রেকর্ডকে হার মানিয়েছে। মুখে গণতন্ত্রের ফুলঝুড়ি ছুটালেও সরকার আদতে স্বৈরতান্ত্রিক ব্যবস্থা কায়েমের মধ্যে দিয়ে জনগণের ন্যায়সংগত অধিকার থেকে জনগণকে বঞ্চিত করতে আগ্রহী। আমরা অবিলম্বে আটককৃত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সোহেল ইসলামের মুক্তি ও লাকী আক্তারকে বিনা অনুমতিতে বিনা ওয়ারেন্টে পুলিশী হয়রানির ঘটনায় জড়িত সদস্যদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে সকল নাগরিকের সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করার দাবি জানাই।

Check Also

রায়পুরায় প্রিজাইডিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ প্রদান

যমুনা নিউজ বিডি: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলায় ১৬১টি ভোট …

Powered by themekiller.com