Home / বিনোদন / মিরাক্কেলের ‘অ্যাডাল্ট জোকস’ পছন্দ করতেন না পরাণ

মিরাক্কেলের ‘অ্যাডাল্ট জোকস’ পছন্দ করতেন না পরাণ

যমুনা নিউজ বিডি: স্থান, কলকাতার সল্ট লেক। তখন সুর্য পূর্ব থেকে হেলতে হেলতে মাঝ আকাশে স্থির হয়েছে। সল্টলেকের পাশে একটা পার্ক। একদিকে সুবিশাল সবুজ মাঠ। ক্রিকেটের পিচ তৈরি করা রয়েছে। সেখানে ক্রিকেট প্র্যাক্টিস করছে কিশোর-তরুণরা। পাশে একটা শিশুদের খেলার জন্য খেলার ব্যবস্থা। শিশুরা খেলছে। ছেলে-মেয়েরা কেউ কেউ আড্ডা মারছে।

পার্কের বাইরে দেয়াল ঘেঁষে কথা বাংলাদেশের কয়েকজন সাংবাদিকের সাথে কথা বলছিলেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেতা পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তার কাছে জানতে চাওয়া হলো, পশ্চিমবঙ্গের টেলিভিশন চ্যানেল জি বাংলার মিরাক্কেলে ‘অ্যাডাল্ট জোকস’ নিয়ে মন্তব্য কী?

তিনি এসব সমর্থন করেন না জানিয়ে বললেন, ‘ওরা যখন এসব করছে হয়তো মনে করছে তারা এসব ভালো করছে। যারা এসব করছে তাদের প্রতি আমার কোনো ইয়ে (অভিযোগ) ছিলনা, কারণ তাদের ভালোবাসি তো আমি। কিন্তু তারা অসংযত আবেগতাড়িত হয়ে একটা অস্থিরতার মধ্যে এমনসব করছে, তারা ভাবছে সাংঘাতিক কিছু করছে। এইটা আমি বোঝাতে পারতাম না তাদের।’

একজন গুণী অভিনেতা হয়েও মিরাক্কেলে ফানি শো’তে আসার কারণ সম্পর্কে পরাণ কীভাবে জড়ালেন, এটা আপনার সঙ্গে যায় কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আসলে যে কোনো একটা অনুষ্ঠানে যাবো আমি। বা কোনো একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাবো। উৎসব হোক, সেখানে আমি যাবো। এর কারণ উৎসবটাকে আমি ভালোবাসি, বিষয়টাকে আমি ভালোবাসি, সেখানে হাজিরা হওয়ার জন্য আমার মনটা ছটইফট করে। কিন্তু সেখানে গিয়ে যে সবটাই আমার মনের মতো করে পাবো এমন তো আর পৃথিবীর কোথাও হয় না। অস্থিরতা তো ভেতরে থাকবেই। একটু নড়বড়ে তো থাকবে- এটাই নিয়েই তো জীবন।

অভিনয় জীবনের প্রাপ্তি অপ্রাপ্তি নিয়ে কোনো আক্ষেপ নেই পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের। প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির হিসেবে মেলাতেও আগ্রহ নেই কলকাতার এই জনপ্রিয় অভিনেতার। বললেন, ‘জীবনে কখনোই প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির হিসেবে মেলাইনি, আর কখনোই মেলাবোও না। আমার এই পথ চলাতেই আনন্দ। চলছি, হাঁটছি কুড়োচ্ছি।’

আর্ট ফিল্ম ও কমার্শিয়াল ফিল্ম সাম্প্রতিক সময়ে প্রচলিত হওয়া ধারাকে ভিন্ন কিছু মনে করেন না পরাণ। তিনি বলেন, কমার্শিয়াল ফিল্ম বলতে আলাদা কিছু নেই। সবটাই কমার্স। যে ছবি যেভাবে পারছে সেভাবে মানুষের মন জয় করার চেষ্টা করছেন।অর্থ উপার্জনের চেষ্টা করছে। শিল্পটাকে প্রাধান্য দিয়ে উৎপাদন করার চেষ্টা করছেন।

সম্প্রতি যুক্ত হয়েছেন দুই বাংলার যৌথ প্রযোজনার ছবি ডেব্রি অব ডিজায়ার-এ। ছবিটি পরিচালনা করছেন কলকাতার নামী পরিচালক ইন্দ্রনীল চৌধুরী। এতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের অপি করিম, কলকাতার ঋত্বিক চক্রবর্তী। এছাড়াও বাকি কুশীলবদের নাম এখনো জানা যায়নি।

সুর্যের তেজ বাড়তে বাড়তে আরেক দফা ইন্টারভিউ দিতে বসা থেকে উঠে ছায়ায় গেলেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

Check Also

কসমিক সেক্স-এর পর কিল দ্য রেপিস্ট?

যমুনা নিউজ বিডি: অমিতাভ চক্রবর্তীর দেখানো পথ অনুসরণ করতে চলেছেন সঞ্জয় ছেল। কসমিক সেক্স-এর পর এবার …

Powered by themekiller.com