Breaking News
Home / খেলাধুলা / ভারতের সঙ্গে সিরিজ খেলতে আইসিসিকে পাকিস্তানের চিঠি

ভারতের সঙ্গে সিরিজ খেলতে আইসিসিকে পাকিস্তানের চিঠি

যমুনা নিউজ বিডি: তীব্র রাজনৈতিক বিরোধপূর্ণ দুই দেশের প্রচুর ক্রিকেটপ্রেমীরা এখনও চায় ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথ দেখতে। ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর দুই দেশের ক্রীড়াপ্রেমীরা আশায় বুক বেঁধেছিলেন। এবার হয়তো দুই দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্কে উন্নতি হবে! কিন্তু সে গুড়ে বালি। ভারত-পাক, দুই দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতা এখনও সমান তালে ক্রিকেটে প্রভাব বিস্তার করছে।

এর আগে অবশ্য একাধিকবার পাক ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে সিরিজ চালু করার ব্যাপারে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বারবারই বেঁকে বসেছে ভারত। ফলে আইসিসির মঞ্চ ছাড়া চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দেশের ক্রিকেট এখন আর দেখা যায় না। অতীতের মতো বর্তমানে আরও একবার ভারতের সঙ্গে সিরিজ খেলার ব্যাপারে উদ্যোগী হল পাকিস্তান। এবার তারা চিঠি পাঠাল আইসিসিতে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ চালুর ব্যাপারে এবার আইসিসির হস্তক্ষেপ চাইছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

পিসিবির চেয়ারম্যান এহসান মানি আইসিসির কাছে আর্জি জানিয়েছেন, ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা যেন এই ব্যাপারটাকে এবার সিরিয়াস হয়ে দেখে। ভারত-পাকিস্তান সিরিজ পুনরায় চালু করার ইস্যুতে আইসিসির সরাসরি হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তিনি।

পাকিস্তানের এক সংবাদপত্রে দেওয়া সাক্ষাত্কারে এহসান মানি বলেছেন, ‘এর আগেও আইসিসির কর্তাদের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। তবে সেটা ব্যক্তিগতভাবে। অনানুষ্ঠানিক কথা হয়েছে একাধিকবার। এখন আমি পিসিবির উচ্চপদে রয়েছি। ফলে দুই দেশের সিরিজ শুরুর ব্যাপারে আমি আরও সক্রিয় ভূমিকা নিতে চাই। তাই আইসিসির কাছে আমাদের এই আবেদন। আইসিসি যেন সমস্ত ক্রিকেট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে আমাদের সিরিজ খেলা নিশ্চিত করে! এক্ষেত্রে নিয়ম সবার জন্য একই হবে বলে আশা রাখি।’

এহসান মানি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘বারবার বলা হচ্ছে, ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সিরিজ হওয়া সম্ভব নয়। তা হলে আইসিসির আয়োজিত একাধিক টুর্নামেন্টে দুই দল একে অপরের বিপক্ষে কী করে খেলছে! এক্ষেত্রে নিয়মবিরুদ্ধ ব্যাপার হচ্ছে।’

এর আগে সিরিজ খেলার সম্ভাবনা প্রায় উজ্জ্বল হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা ভেস্তে যায়। যার জন্য ক্ষতিপূরণবাবদ বিসিসিআইয়ের কাছে ৭০ মিলিয়ন ডলার দাবি করেছে পিসিবি। পিসিবির দাবি, বিসিসিআই মউ চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। ভারতীয় বোর্ড অবশ্য সেই মউ আইনসিদ্ধ নয় বলে দাবি তুলেছে।

এহসান দাবি করছেন, আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান সম্ভব। এক্ষেত্রে তিনি দুই দেশের সরকারের হস্তক্ষেপও দাবি করেছেন। প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালের পর আর কখনও ভারত-পাকিস্তান পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলা হয়নি। সেবার বারত সফরে এসেছিল পাকিস্তান। এর পর ২০০৮ সালে মুম্বাইয়ে জঙ্গি হামলার পর দুই দেশের রাজনৈতিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। যার প্রচ্ছন্ন প্রভাব পড়ে ক্রিকেটে।

Check Also

এবারের আইপিএলে বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন মুসলিম ক্রিকেটাররা

যমুনা নিউজ বিডি:  ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বাদশ আসরে বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন মুসলিম ক্রিকেটাররা। এই আসরে …

Powered by themekiller.com