Home / নারী ও শিশু / ফসলি জমিতে মিলল গৃহবধূর লাশ

ফসলি জমিতে মিলল গৃহবধূর লাশ

যমুনা নিউজ বিডি: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার হকপুর মোল্যাকান্দি এলাকার একটি ফসলি জমি থেকে নিলুফা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার বেলা ১২টার দিকে সখিপুর থানার পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
ওই গৃহবধূ একই থানার ডিএমখালী ইয়াকুব ব্যাপারীকান্দি গ্রামের মনা ফকিরের মেয়ে। শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের ধারণা।
পুলিশ জানায়, পাঁচ বছর আগে নারীর বিয়ে হয় ভেরগঞ্জ উপজেলার মহিসার ইউনিয়নের সত্যপুর গ্রামে। তার স্বামী বাক প্রতিবন্ধী হওয়ায় বেশিদিন সংসার স্থায়ী হয়নি। এর পর এক বছর আগে পার্শ্ববর্তী বালাকান্দি গ্রামের এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বিয়ে হয়। সেই সংসারও স্থায়ী হয়নি। পাঁচ মাস আগে ওই নারী স্বামীর সংসার ছেড়ে বাবার বাড়ি চলে আসে। এর পর থেকে সে বাবার বাড়িতেই বসবাস করত।
শুক্রবার বিকালে সখিপুর বাজারে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। বাড়িতে না ফেরায় স্বজনরা চিন্তিত হয়ে পরে। তারা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। শনিবার বেলা ১২টার দিকে বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দুরে একটি সরিসার জমিতে তার দেহ পরে থাকতে দেখা যায়। পুলিশ ওই দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।
নিলুফা বেগমের ভাই খোকন ফকির বলেন, আমাদের কোনো শত্রু নেই। কে আমার বোনকে হত্যা করল? আমি  হত্যাকারীদের শাস্তি চাই।
সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক বলেন,ওই নারীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তবে কি কারণে কারা তাকে হত্যা করেছে এ ব্যাপারে তার পরিবারও কোনো ধারণা দিতে পারছে না। হত্যাকারী ও হত্যার কারণ চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। ওই নারী হত্যার আগে ধর্ষণের শিকার হয়েছে কিনা তা ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে। অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Check Also

শার্শা সীমান্ত থেকে ইয়াবাসহ যুবক আটক

যমুনা নিউজ বিডি : যশোরের শার্শা থানার অগ্রভুলাট সীমান্ত থেকে ১ হাজার ৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ …

Powered by themekiller.com